বাংলাদেশে বিনিয়োগে শীর্ষে চীন

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশে বিনিয়োগে শীর্ষে রয়েছে চীন। ২০১৬ সালের পর থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ বাড়িয়েছে দেশটি। সরকারি হিসাব অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের স্থান চতুর্থ। গত বছর ১৭ কোটি ৪০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করে দেশটি।

২০১৮ সালে বাংলাদেশে বৈদেশিক সরাসরি বিনিয়োগ ৩৬০ কোটি ডলার। এর মধ্যে চীনই করেছে বেশি। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, বিশ্বের প্রায় সর্বত্রই এখন চীন বৃহৎ বিনিয়োগকারী। বাংলাদেশেও এর ব্যতিক্রম নয়। গত বছর চীনের পর নেদারল্যান্ডস ছিল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বিনিয়োগকারী রাষ্ট্র। দেশটি বিনিয়োগ করে ৬৯ কোটি ২০ লাখ ডলার। ৩৭ কোটি ১০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করে তৃতীয় স্থানে ছিল ব্রিটেন। ১৯৮০ সালের পর বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি হয়। ১৯৯৫ সালে মোবাইল টেলিযোগাযোগ খাতে বৈদেশিক বিনিয়োগে অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ। এরপর নরওয়ের টেলিনর ও মিসরের ওরাশকমের মতো টেলিকম জায়ান্ট বাংলাদেশে প্রবেশ করে। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জ্বালানি চাহিদা মেটাতে লড়াই করতে হয়েছে বাংলাদেশকে। ২০০৮ ও ২০০৯ সালে জ্বালানি সংকট ছিল তীব্র। এর মধ্যে ২০১৩ সালে ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড অবকাঠামো উদ্যোগের ঘোষণা দেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং। এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ১ ট্রিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থ বিনিয়োগ করতে চায়। এরই অংশ হিসেবে ২৩টি দেশে কয়লাচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে ২৩শ’ কোটি ডলার ঋণ দেয় চীনা ব্যাংকগুলো।

জ্বালানি খাতে চীনের ঋণের মধ্যে বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি অর্থ অর্থাৎ ৭০০ কোটি ডলার পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চীনা বিনিয়োগকারীরা জ্বালানি খাতে প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করছেন। জ্বালানি খাতে চীনের এমন প্রভাব নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন অর্থনীতিবিদ ড. হোসেন জিল্লুর রহমান। তার মতে, বাংলাদেশে বিনিয়োগ পরিবেশ নিয়ে সমালোচনা রয়েছে। এখানে দুর্নীতি, আমলাতান্ত্রিক ও আইনি হয়রানি আছে। তবে বিদ্যুৎ উন্নয়ন কর্মকর্তারা মনে করেন, অযথাই সমালোচনা করা হচ্ছে। কারণ এখানে সুশাসন রয়েছে। যদিও কয়েক বছর ধরে জ্বালানি খাতে দুর্নীতির অভিযোগ উঠছে জোরেসোরে। বিশেষ করে বাংলাদেশের দ্বিতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে চীনের দৌড়ঝাঁপের পর সমালোচনা প্রবল হয়েছে। এ প্রকল্পে ১৮০০ কোটি ডলার ব্যয় হবে বলে আণবিক জ্বালানি কমিশনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×