স্বামীর মারধর ননদের গরম তেলে দগ্ধ : আটক ৬

  কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি ২৫ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শানু আক্তারের (২০) বিয়ে হয়েছে মাত্র ৫ মাস। বিয়ের পর স্বামীকে নিয়ে আলাদা সংসার পাতেন। সংসার জীবন বুঝে ওঠার আগেই স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারে জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে শানু আক্তারের। শেষ পর্যন্ত ননদের ছুড়ে মারা গরম তেলে ঝলসানো শরীর নিয়ে সম্প্রতি হাসপাতালে ভর্তি হয় শানু। এ ঘটনায় শুক্রবার ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হল- শানু আক্তারের স্বামী অলি মিয়া, শ্বশুর নূর হোসেন, শাশুড়ি সাজেদা বেগম, তিন ননদ লিপি বেগম, ফেন্সি বেগম ও মিতু বেগম।

রোববার রাতে কেরানীগঞ্জের জিনজিরা ইউনিয়নের মান্দাইলে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। ননদের ছুড়ে মারা গরম তেলে তার তিন প্রতিবেশীও দগ্ধ হন। তারা হলেন- আরমান হাসান (২০), মো. তুহিন (২২) ও মেহেদী (১৫)। দগ্ধ গৃহবধূ শানু আক্তারের বাবা শফুর উদ্দিন জানান, ৫ মাস আগে প্রতিবেশী অলি মিয়ার সঙ্গে তার মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী-স্ত্রী বাসা ভাড়া নিয়ে সংসার জীবন শুরু করে। বিয়ের পর জানতে পারি শানুর স্বামী নেশা করে। এ নিয়ে ওদের দু’জনের মধ্যে সংসারে মনোমালিন্য চলছিল। মাঝে মাঝে শানুকে মারধর করত অলি মিয়া। ৩ দিন ধরে অলি মিয়া বাসায় না ফেরায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শানু শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্বামীর খোঁজ করেন। এ সময় অলি মিয়া শানুকে মারধর করে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয়। পরে ৩ প্রতিবেশীকে নিয়ে রাত ১০টার দিকে শানু পুনরায় শ্বশুরবাড়ি গেলে তারা ওকে দেখে ক্ষুব্ধ হন এবং এক পর্যায়ে অলি মিয়ার বড় বোন লিপি আক্তারের বাসার চুলায় থাকা গরম তেল নিক্ষেপ করেন। এতে শানুসহ ৪ জন দগ্ধ হন। এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে যায়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×