কালিয়াকৈরে বন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গাছ বিক্রির অভিযোগ

  কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি ১১ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গাছ বিক্রি

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নের জাথালিয়া বিটের এক বন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনুমোদন ছাড়াই প্রায় দেড় লাখ টাকার গাছ বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই বিক্রীত গাছগুলো রোববার রাতে পাচার করা হয়েছে।

গাছ বিক্রির ঘটনায় ওই বন কর্মকর্তার নামে বিভাগীয় বন সংরক্ষক (ডিএফও) বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন কাঁচিঘাটা রেঞ্জ কর্মকর্তা। নানা অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগে স্থানীয়রা ওই বন কর্মকর্তার প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন।

এলাকাবাসী ও বন বিভাগ সূত্র জানায়, কালিয়াকৈর উপজেলার কাঁচিঘাটা রেঞ্জ অফিসের আওতায় জাথালিয়া বিট অফিস রয়েছে। ওই বিট অফিসের পাশ দিয়ে কালিয়াকৈর-ফুলবাড়িয়া-মাওনা আঞ্চলিক সড়ক চলে গেছে। ওই সড়কের দু’পাশে দীর্ঘদিনের পুরনো বাগান আছে। এর মধ্যে ১৮টি গাছ ওই জাথালিয়া বিটের বন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর ১৬-১৭ দিন আগে কৌশলে বিক্রি করে দেন। গাছের মূল্য বাবদ তিনি স্থানীয় কাঠ ব্যবসায়ী লেহাজ উদ্দিন, সুরুজ মিয়াসহ কয়েকজনের কাছ থেকে ১ লাখ ৪৮ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। স্থানীয়রা বলছেন গাছগুলো সড়ক বিভাগের। কেউ বলছেন গাছগুলো বন বিভাগের। আবার কেউ বলছেন গাছগুলো ব্যক্তি মালিকানাধীন। কিন্তু ওই বন কর্মকর্তা অনুমোদন ছাড়া কীভাবে গাছগুলো বিক্রি করে দিলেন? গাছ কাটার পর এ নিয়ে এলাকায় হইচই পড়ে যায়। খবর পেয়ে ওই সময় কাঁচিঘাটা রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মহসিন বনের ৭টি গাছ জব্দ করেন এবং বাকি গাছগুলো ওই অফিসের পেছনের রাখেন। এ ঘটনায় রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মহসিন গাছ বিক্রি করায় ওই জাথালিয়া বিটের বন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীরের বিরুদ্ধে ডিএফও কাছে লিখিত অভিযোগও করেন। কিন্তু বিট কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর থেমে থাকেননি। তিনি রোববার রাতে ওই গাছগুলো পাচার করেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। গাছ কাটার পর ভেকু দিয়ে মাটি কেটে তা ভরাট করে দেয়া হয়েছে বলে অনেকেই জানিয়েছেন।

জাথালিয়া বিট কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর বলেন, ওই বিট অফিসের সামনে ১৮টি গাছ কাটা হলেও বিষয়টি আমার জানা নেই।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×