এরশাদের আসন শূন্য ঘোষণা

প্রকাশ : ১৭ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মারা যাওয়ায় তার রংপুরের সংসদীয় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। ১৫ জুলাই সকালে সংসদ ভবন প্রাঙ্গণে এরশাদের জানাজা শেষ করার পরই বিকালে তার সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়। মঙ্গলবার সংসদ সচিবালয়ে তা ছাপা আকারে সংসদে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছেন আইন শাখা-২ এর উপসচিব নাজমুল হক। তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী কোনো সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা করা হলে তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

জানা যায়, গেজেটে উল্লেখ করা হয়েছে, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ১৪ জুলাই মৃত্যুবরণ করায় তার সংসদীয় আসন রংপুর-৩ শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। সংবিধানের ১২৩(৪) দফায় বলা হয়েছে, ‘সংসদ ভাঙিয়া যাওয়া ব্যতীত অন্য কোনো কারণে সংসদের কোনো সদস্যপদ শূন্য হইলে পদটি শূন্য হইবার ৯০ দিনের মধ্যে উক্ত শূন্যপদ পূর্ণ করিবার জন্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হইবে (তবে শর্ত থাকে যে, যদি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের মতে, কোনো দৈব-দুর্বিপাকের কারণে এই দফার নির্ধারিত মেয়াদের মধ্যে ওই নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব না হয়, তাহা হইলে উক্ত মেয়াদের শেষদিনের পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে উক্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হইবে)।’

এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসনের (সংসদীয় আসন ৩৩৪, মহিলা আসন ৩৪) সদস্য রুশেমা বেগমের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য করে সংসদ সচিবালয়। মারা যাওয়ার পরদিনই গেজেট প্রকাশ করা হয়। মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনে এ সংক্রান্ত গেজেট পাঠিয়েছে সংসদ সচিবালয়।

ইসির যুগ্মসচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান বলেন, ‘সংরক্ষিত ৩৪ মহিলা আসনের বিষয়ে সংসদ সচিবালয়ের গেজেট আমরা পেয়েছি। বুধবারের মধ্যে রংপুর-৩ আসনের গেজেট হাতে পাব আশা করি। এ দুটির উপনির্বাচনের বিষয়ে কমিশনে উপস্থাপন করা হবে।’ রংপুর-৩ আসনে অক্টোবরের মধ্যে ও সংরক্ষিত মহিলা রুশেমা বেগমের আসনের উপনির্বাচন আগস্টের মধ্যে করতে হবে।