ডিএসইর শেয়ার বিক্রি

চীন-ভারত ইস্যুতে বিএসইসির কমিটি গঠন

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই)

বিদেশিদের কাছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শেয়ার বিক্রি ইস্যুতে চার সদস্যদের কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। কমিটিকে আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। চীনের কাছে শেয়ার বিক্রির প্রস্তাব পাঠানোর পর বৃহস্পতিবার এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এর আগে ভারতকে বাদ দিয়ে চীনের শেনচেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জকে কৌশলগত অংশীদার করতে বৃহস্পতিবার নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে আনুষ্ঠানিক আবেদন করেছে ডিএসই। ডিএসইর পরিচালক মো. রকিবুর রহমান বৃহস্পতিবার যুগান্তরকে বলেন, সব কিছু বিবেচনা করে ডিএসইর বোর্ড মনে করেছে চীনের প্রস্তাব স্টক এক্সচেঞ্জকে শক্তিশালী করবে। তাই চীনের পক্ষে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইতিমধ্যে আমাদের সিদ্ধান্ত কমিশনকে জানানো হয়েছে। আশা করছি, বাংলাদেশের শেয়ারবাজারের স্বার্থে কমিশন খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নেবে।

এ প্রস্তাব পাওয়ার পরই জরুরি কমিশন সভা করে কমিটি গঠন করেছে বিএসইসি। কমিটির সদস্যরা হলেন- কমিশনের নির্বাহী পরিচালক ফরহাদ আহমেদ, আনোয়ারুল ইসলাম, এটিএম তারিকুজ্জামান এবং মাহবুবুল আলম। আর এ প্রস্তাব অনুমোদন পেলেই ডিএসইর ওই শেয়ার শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে শেয়ার বিক্রির ব্যাপারে চুক্তি সই করবে ডিএসই। আর এ প্রক্রিয়া শেষ করতে প্রায় তিন মাসের মতো সময় লাগবে।

জানা গেছে, স্টক এক্সচেঞ্জের ডিমিউচুয়ালাইজেশনের (মালিকানা থেকে ব্যবস্থাপনা আলাদাকরণ) শর্ত অনুসারে কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের কাছে ২৫ শতাংশ বিক্রি করা বাধ্যতামূলক। আগামী ৮ মার্চের মধ্যে এ শেয়ার বিক্রি করতে হবে। এ কারণে কৌশলগত বিনিয়োগকারীর জন্য আন্তর্জাতিকভাবে দরপত্র আহ্বান করে ডিএসই। এক্ষেত্রে চীন ও ভারতের স্টক এক্সচেঞ্জ অংশ নেয়। তবে দরপত্রে সবকিছুতেই পিছিয়ে রয়েছে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান। ফলে গত ১০ ফেব্রুয়ারি ডিএসইর বোর্ড সভায় চীনকে শেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর নড়েচড়ে বসে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান। চীনকে শেয়ার দেয়ার সিদ্ধান্তের পর ভারত দাম বাড়িয়ে শেয়ার কিনতে আগ্রহ জানিয়েছে। বিএসইসিও ভারতকে শেয়ার দিতে চেয়েছিল। কিন্তু তারা কোনো দায় নেবে না। ফলে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থার এ ধরনের কার্যক্রমের নিন্দা জানিয়েছে দুর্নীতিবিরোধী আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল অব বাংলাদেশ (টিআইবি)। আর শুধু বাংলাদেশ নয়, বিশ্ব গণমাধ্যমেও গুরুত্ব দিয়ে এ সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। এরপর সোমবার কৌশলগত অংশীদার করতে চীনের শেনচেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কনসোর্টিয়ামের প্রস্তাবেই চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ। আগামী সোমবার বিএসইসির সঙ্গে বৈঠকে বসবে ডিএসইর পর্ষদ। চীনের প্রধান তিনটি স্টক এক্সচেঞ্জের মধ্যে সাংহাই ও শেনচেন রয়েছে দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে। বাজার মূলধনের দিক থেকে বিশ্বের সেরা ১০টি স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকাতেও রয়েছে এক্সচেঞ্জ দুটি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter