আশুলিয়ায় স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ

  আশুলিয়া (ঢাকা) প্রতিনিধি ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আশুলিয়ায় ঘরে ঢুকে স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রেখে এক উপজাতি নারীকে গণধর্ষণ করেছে ৪ বখাটে। ১৩ আগস্ট মঙ্গলবার রাত ৮টায় আশুলিয়ার ডেণ্ডাবর নতুনপাড়া এলাকার মঈন উদ্দিনের ভাড়া বাড়িতে গণধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। ১৭ আগস্ট আশুলিয়া থানায় ৪ ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেন উপজাতি ওই নারী। এ ঘটনায় রনি (২১) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেছেন, ১৩ আগস্ট বাসায় অবৈধভাবে মদ তৈরির অভিযোগ করে আমাদের ঘরে ঢুকে পড়ে ৪ বখাটে। এ সময় আমাদের কাছে ওরা ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে আমার স্বামীকে মারধর করে এবং বাসায় ব্যাপক ভাংচুর চালায়। পরে স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রেখে আমাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ৪ বখাটে। চলে যাওয়ার সময় এ ঘটনা কাউকে জানালে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যায় তারা।

আসামিরা হল- পাবনা জেলার আটঘরিয়া থানার পাইকপাড়া গ্রামের মন্টু মিয়ার ছেলে রনি (২১), আশুলিয়ার ডেণ্ডাবর নতুনপাড়া এলাকার খোরশেদ আলম খোকনের ছেলে জয় (২২), ফরিদপুর জেলার শামীম (২৬) ও ডেণ্ডাবর নতুন পাড়া এলাকার কাইয়ুম মোল্লার ছেলে রাজু (২৬)। এর মধ্যে রনি এবং শামীম ডেণ্ডাবর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকত।

আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রিজাউল হক দিপু জানান, উপজাতি এক নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। রনি নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরও খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত