অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন বাস্তবায়ন

সুলতানা কামালের মন্তব্যের প্রতিবাদ আইন মন্ত্রণালয়ের

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

‘অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন ২০০১’ বাস্তবায়ন নিয়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামালের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

সোমবার মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো প্রতিবাদপত্রে বলা হয়, ‘২৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন ২০০১ বাস্তবায়নে আইনমন্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে সুলতানা কামালের মন্তব্য মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। তার ওই বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য, দুঃখজনক এবং ভিত্তিহীন। কারণ আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রীর বাধা প্রদান করার কোনো কারণ নেই। বরং আইনের সুষ্ঠু ও যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে কিভাবে তা বাস্তবায়ন করা যায় সেজন্য তিনি আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন ২০০১-এর আওতায় অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ ট্রাইব্যুনালে মামলা করার বিধান রয়েছে এবং দায়েরকৃত মামলার সিদ্ধান্তগুলোর বিরুদ্ধে উক্ত আইনের ১৮(১) ও (২) উপধারার বিধান মতে আপিল ট্রাইব্যুনালে আপিল করার বিধান রয়েছে এবং উল্লিখিত বিধান অনুযায়ী আইনটি সফলভাবে প্রয়োগ করার সুযোগ রয়েছে। আইনমন্ত্রী এক্ষেত্রে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন প্রয়োগ বাধাগ্রস্ত করার কোনো কারণ নেই। সুতরাং এ নিয়ে মাননীয় আইনমন্ত্রীকে দায়ী করে অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল প্রকৃত তথ্য না জেনে যে মন্তব্য করেছেন, তা অনভিপ্রেত।

প্রতিবাদপত্রে আরও বলা হয়, ‘অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন ২০০১-এর ১৯ ধারার বিধানমতে আপিল ট্রাইব্যুনাল স্থাপনের দায়িত্ব প্রশাসনিক মন্ত্রণালয় হিসেবে ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওপর ন্যস্ত। বেশ কয়েক মাস আগে আইনমন্ত্রীর সভাপতিত্বে আইন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ভূমি মন্ত্রণালয়ের একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে রিট মামলা না করা এবং এ বিষয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সব জেলা প্রশাসককে অবহিতকরণের সিদ্ধান্ত হয়। আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট কোনো বাধা থাকলে তা দূরীকরণে ভূমি মন্ত্রণালয় প্রশাসনিক মন্ত্রণালয় হিসেবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে। এক্ষেত্রে আইনমন্ত্রীর অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনটির প্রায়োগিক ক্ষেত্রে বাধা প্রদান কিংবা বাস্তবায়নে বাহানা তৈরি করার কোনো কারণ নেই।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter