ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস আজ

চিকিৎসা সেবার বাইরে অর্ধেক রোগী

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি

দেশে বর্তমানে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৮৪ লাখেরও বেশি। যাদের অর্ধেক রোগীকে চিকিৎসার আওতায় আনা সম্ভব হলেও বাকিরা রয়ে গেছেন সেবার বাইরে। দেশব্যাপী ছড়িয়ে থাকা এ বিপুলসংখ্যক ডায়াবেটিস রোগীর সেবার আওতায় আনতে কাজ করছে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির আওতাধীন প্রায় ৫ শতাধিক ইউনিট। বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সারা দেশে জাতীয় ‘ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস পালিত হচ্ছে’।

সমিতির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা জাতীয় অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম ডায়াবেটিস রোগীর জন্য বারডেম হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেন। তার মৃত্যুর পরে দেশের সব জেলা ও থানায় রোগীদের চিকিৎসার সুবিধার্থে পর্যায়ক্রমে সমিতির ইউনিট স্থাপন করা হয়। এ রোগ সম্পর্কে রোগীদের সচেতনতায় বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়। এসব কার্যক্রমের ফলে ডায়াবটিসে আক্রান্ত অর্ধেক রোগীকে চিকিৎসার আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে। ডায়াবেটিক সমিতির তথ্যমতে, ১৯৮৫ সালে বিশ্বে তিন কোটি ডায়াবেটিস রোগী ছিলেন। বর্তমানে তা ৩৭ কোটিতে দাঁড়িয়েছে। গত ৩০ বছরে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা প্রায় ১২ গুণ বেড়েছে। হিসাব মতে, প্রতি ৮ সেকেন্ডে বিশ্বে ডায়াবেটিসজনিত জটিলতায় একজন রোগীর মৃত্যু হয়। এখনই এ রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব না হলে ২০৩০ সালের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৫ কোটিতে পৌঁছে যাবে। এ রোগের ব্যাপক বিস্তারের কারণে ২০১৪ সালে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ডায়াবেটিসকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করে। ডায়াবেটিক সমিতির তথ্যমতে, অগ্ন্যাশয় থেকে যথেষ্ট ইনসুলিন তৈরি না হলে অথবা শরীর তা ব্যবহারে ব্যর্থ হলে ডায়াবেটিস হয়। এতে রক্তে চিনি বা শর্করায় অসামঞ্জস্য দেখা দেয়। বিশেষজ্ঞদের তথ্যমতে, ডায়াবেটিস প্রধানত দুই ধরনের- টাইপ-১ ও টাইপ-২। সাধারণত ৩০ বছরের কম বয়সীদের টাইপ-১ ডায়াবেটিস দেখা যায়। এ ধরনের রোগীদের শরীরে ইনসুলিন একেবারেই তৈরি হয় না। বেঁচে থাকার জন্য এসব রোগীদের ইনসুলিন নিতে হয়। তবে টাইপ-২ রোগীর সংখ্যাই বেশি। মোট ডায়াবেটিস রোগীর মধ্যে ৯০ থেকে ৯৫ ভাগ রোগীই টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। এদের শরীরের ইনসুলিন নিষ্ক্রিয় থাকে অথবা ইনসুলিনের ঘাটতি থাকে। এ ধরনের ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য খাদ্যাভাস পরিবর্তন ও নিয়মিত ব্যায়াম অপরিহার্য।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.