কোয়ারেন্টিনে পাঁচ প্রবাসী, কালিয়াকৈরে এক গ্রামে আতঙ্ক

  কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি ২৭ মার্চ ২০২০, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চাতৈলভিটি গ্রামে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পনেরো দিনে পাঁচ প্রবাসী গ্রামে ফিরে আসায় এই আতঙ্ক দেখা দেয়। দুই প্রবাসীর পরিবারের সদস্যরা আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে পালিয়ে গেছেন। এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা প্রবীর কুমার সরকার জানান, ওই গ্রামে আমাদের মেডিকেল টিম কাজ করছে। আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত উপজেলায় বিদেশ ফেরত একশ’জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

জানা যায়, ২৪ মার্চ আটাবহ ইউনিয়নের ওই গ্রামের আমির হোসেনের (২৮) ছেলে মনির হোসেন লন্ডন থেকে বাড়ি ফিরছে খবর পেয়ে তার বাবা-মা, ভাবিসহ সবাই অন্যত্র সরে পড়ে। তবে বড় ভাই মামুন বাড়িতে থেকে তাকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার ব্যবস্থা করেন। একই রকম ঘটনা ঘটেছে বিদেশ ফেরত আবদুর রাজ্জাকের বাড়িতে। তিনি ১৫ মার্চ বাড়ি আসেন। এ সময় স্ত্রী-সন্তান সবাই পালিয়ে স্বজনের বাড়িতে চলে যান। তবে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্যরা আবদুর রাজ্জাককে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখেন। আহম্মদ আলীর ছেলে রহিম মিয়া গত সপ্তাহে আসেন ইতালি থেকে। তাকেও হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। গত সপ্তাহে ইন্তাজ আলীর ছেলে আবদুল হালিম আসেন সৌদি আরব থেকে। তাকেও হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। অপরদিকে দুই সপ্তাহে চীন থেকে আসেন একই গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে মুইন হোসেন। এ নিয়ে এই চাতৈলভিটি গ্রামে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত সপ্তাহেই গ্রামের সড়ক জনশূন্য হয়ে পড়েছে।

আটাবহ ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন ওরফে আইনুল হক জানান, একই গ্রামে পাঁচ প্রবাসী ফেরত আসায় করোনাভাইরাস আতঙ্ক রয়েছে। তবে বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের পুলিশ ও চৌকিদারদের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫১ ২৫
বিশ্ব ৮,৫৬,৯১৭১,৭৭,১৪১৪২,১০৭
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×