জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন

নারীদের নামে স্বামীর বংশ পদবি যুক্ত করতে অনীহা ইসির

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ মার্চ ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিবাহিত নারীদের জাতীয় পরিচয়পত্রে স্বামীর বংশ পদবি অন্তর্ভুক্তিতে অনীহা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সোমবার কমিশনের সভায় সার্টিফিকেটের নামই জাতীয় পরিচয়পত্রে রাখার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে। তবে যাদের সার্টিফিকেট নেই বা বিশেষ প্রয়োজনে নামের সঙ্গে স্বামীর বংশ যুক্ত করতে চান, তাদের নাম সংশোধনে কমিশনের অনুমোদনের নির্দেশনা দেয়া হয়। মিতা সরকার নামে হিন্দু ধর্মাবলম্বী নারীর নামের সঙ্গে স্বামীর গোত্রীয় পদবি যুক্ত করার বিষয়ে আলোচনা করে এসব সিদ্ধান্ত দেয়া হয়। জানা গেছে, মিতা সরকার নামের এক নারী তার নামের সঙ্গে স্বামীর বংশ পদবি ‘সিংহ রায়’ যুক্ত করতে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনের আবেদন করেন। ওই বিষয়ে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ কোনো সিদ্ধান্ত না দিয়ে বিষয়টি কমিশনের সিদ্ধান্তের ওপর ছেড়ে দেয়। ওই সভায় মূল নাম অপরিবর্তিত রেখে আবেদনকারীসহ অনুরূপ অন্যান্য হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিবাহিত নারীর ক্ষেত্রে নামের শেষাংশে শুধু স্বামীর গোত্র রাখা যায় কিনা- সেই নির্দেশনা চাওয়া হয়। পরে সংশোধনের এই নির্দেশনা দেয়া হয়।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের কর্মকর্তা বলেন, হিন্দু ধর্মাবলম্বী নারীরা বিয়ের পর তার নামের সঙ্গে স্বামীর গোত্র পদবি যুক্ত করে থাকেন। অনেক ক্ষেত্রে মুসলিম নারীরাও স্বামীর বংশ পদবি যুক্ত করতে চান। এসব দিক বিবেচনায় রেখে কমিশনে বিষয়টি উত্থাপন করা হয়। কমিশন সার্টিফিকেট অনুযায়ী নাম সংশোধনের সিদ্ধান্ত দিয়েছে। তবে বিশেষক্ষেত্রে কমিশনের অনুমোদন নিয়ে নাম সংশোধন করা যাবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter