১৪ দলের যৌথ বিবৃতি

কর্মহীন মানুষকে নগদ অর্থ প্রদান কর্মসূচি মানবিক পদক্ষেপ

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৪ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কর্মহীন শ্রমজীবী মানুষদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘নগদ অর্থ প্রদান’ কর্মসূচিকে একটি মানবিক পদক্ষেপ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন কেন্দ্রীয় ১৪ দলীয় জোটের নেতারা। বুধবার এক যৌথ বিবৃতিতে জোট নেতারা বলেন, করোনাভাইরাসে বিপর্যন্ত দেশের ক্রান্তিকালে দরিদ্র, কর্মহীন ও শ্রমজীবী মানুষের জন্য একজন মানবিক প্রধানমন্ত্রীর এটি একটি মানবিক পদক্ষেপ। তারা বলেন, করোনা মোকাবেলায় বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের একটি হল ‘নগদ অর্থ প্রদান’ কর্মসূচি। এ কর্মসূচি আজ উদ্বোধন করা হবে।

বিবৃতিতে নেতারা আরও বলেন, দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য জনদরদি প্রধানমন্ত্রীর পক্ষেই কেবল এমন কর্মসূচি গ্রহণ করা সম্ভব হয়েছে। আসন্ন পবিত্র ঈদকে সামনে রেখে অতি দরিদ্র শ্রমজীবী মানুষের মাঝে নগদ আড়াই হাজার টাকা করে দেয়া হবে। এ সহায়তা শুধু তাদের স্বস্তিই দেবে না, তাদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস সৃষ্টি করবে যে তাদের জন্য একজন দরদি প্রধানমন্ত্রী আছেন। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ১৪ দল সব সময় ছিল এবং আছে।

১৪ দলের যৌথ বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী, বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, গণআজাদী লীগের সভাপতি এসকে শিকদার, ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান ও বাসদের রেজাউর রশীদ খান।

যৌথ বিবৃতিতে আরও বলা হয়, একটি বিষয়ে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। লকডাউন শিথিলের সুযোগে ঢাকা এবং বিভিন্ন জেলা ও মফস্বল শহরে এক শ্রেণির দোকারদার-ব্যবসায়ী স্বাস্থ্য সুরক্ষা না মেনে ব্যবসা চালু রেখেছে। এতে করোনা সংক্রমণ ব্যাপক আকার ধারণ করতে পারে। ঈদ বাজারের নামে বড় ধরনের ব্যবসা করার সুযোগ নিয়ে ব্যবসায়ীরা সাধারণ মানুষকে আরও বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। এটা খুবই দুঃখ ও দুর্ভাগ্যজনক। প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে ১৪ দলীয় জোটের নেতারা আরও বলেন, স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি অমান্যকারী দোকান বন্ধ করে দিন। প্রয়োজনে অতি উৎসাহী ক্রেতাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। তারা বলেন, এক শ্রেণির গার্মেন্ট ব্যবসায়ী কারখানা খোলার নামে শ্রমিক ও সাধারণ মানুষকে করোনার মতো ভয়ঙ্কর ভাইরাস ছড়িয়ে দেয়ার বিপজ্জনক খেলায় মেতেছিল। সরকার বিভিন্ন আর্থিক প্রণোদনার ব্যবস্থা করেছে। সেখানে স্বাস্থ্য সুরক্ষা না মেনে বাজার ও মার্কেট খোলায় করোনা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ করে তুলছে। এটা রোধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত