সিদ্ধিরগঞ্জে গার্মেন্টে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

অনির্দিষ্টকাল বন্ধ ঘোষণা তিন পোশাক কারখানায়

  সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ০৩ জুন ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদ ও বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন ৩ পোশাক কারখানার কয়েশ’ শ্রমিক। মঙ্গলবার সকালে একে ফ্যাশন, আহসান গ্রুপ ও অ্যাপরেলস লিমিটেডের শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করেন। গার্মেন্ট ৩টির মালিক ইঞ্জিনিয়ার কামরুল আহসান। বিক্ষোভ চলাকালে দুপুরে কারখানাগুলো অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে মালিকপক্ষ। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকাল থেকেই ঘটনাস্থলে পুলিশ অবস্থান নেয়।

ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৪ এর সহকারী পুলিশ সুপার আইনুল হক জানান, বর্তমান পরিস্থিতিতে মালিকপক্ষ কারখানা অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে। পরে তারা পরিস্থিতি বুঝে কারখানা খোলার সিদ্ধান্ত নেবে।

লকডাউনের সময় গার্মেন্ট লে-অফ ছিল। পরে সীমিত আকারে গার্মেন্ট চালু করা হয়। লকডাউনের সময় এবং কারখানা চালু করার পরও যেসব শ্রমিক কর্মচারী কাজে যোগদান করেননি তাদের মূল বেতনের ৬০ শতাংশ মালিকপক্ষ দিয়ে আসছে। গার্মেন্ট পুরোপুরি চালু না হওয়ায় ৩শ’ শ্রমিক-কর্মচারী কাজে যোগ দিতে পারেননি। তাদের ছাঁটাই করা হবে এ খবর ছড়িয়ে পড়ে সাধারণ শ্রমিক কর্মচারীদের মাঝে। এতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। মঙ্গলবার সকালে ৩ গার্মেন্টের ২২শ’ শ্রমিকের মধ্যে ১৯শ’ কাজে যোগ দেন। এর মধ্যে কিছু শ্রমিক গার্মেন্টের পরিচালক আবদুর রাজ্জাককে বেধড়ক মারধর করে। গার্মেন্টের পরিচালক রুবাইয়াত হোসাইন জানান, ৩ গার্মেন্টেই মার্চের পুরো বেতন দেয়া হয়েছে ৭ এপ্রিল। পরদিন এপ্রিলের বেসিক বেতন দিয়ে ১ মে পর্যন্ত গার্মেন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়। বিকাশের মাধ্যমে মে মাসের বেতনসহ সরকার ঘোষিত সব পাওনাদি পরিশোধ করা হয়। কাজের অর্ডার না থাকার পরও আংশিক গার্মেন্ট খোলা হয় মঙ্গলবার। এতে কিছু শ্রমিক কাজে যোগদান করেন। কিন্তু শ্রমিকদের একটি অংশ বাইরে বিক্ষোভ শুরু করে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত