কোচিং সেন্টারগুলো শুধু অবৈধই নয় দুর্নীতিরও আখড়া : ইকবাল মাহমুদ

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কোচিং সেন্টারগুলো শুধু অবৈধই নয় দুর্নীতিরও আখড়া : ইকবাল মাহমুদ
সততা সংঘের সেমিনারে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, যে কোনো মূল্যে প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং কোচিং বাণিজ্য চিরতরে বন্ধ করতে হবে।

আমাদের সন্তানরা সারা দিন কোচিং সেন্টারে সেন্টারে ঘুরে বেড়াবে তা হতে পারে না। তিনি বলেন, সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন বাংলাদেশের সব কোচিং সেন্টার অবৈধ।

আমরা বলতে চাই কোচিং সেন্টারগুলো শুধু অবৈধই নয় দুর্নীতিরও আখড়া। আমরা সরকার, ছাত্র-শিক্ষক, অভিভাবক সবার কাছে অনুরোধ জানাব- আসুন এ অবৈধ কোচিং সেন্টার বন্ধের উদ্যোগ গ্রহণ করি।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে দুদকের সততা সংঘের সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ‘বন্ধ হলে দুর্নীতি, উন্নয়নে আসবে গতি’ এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে ২৬ মার্চ শুরু দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শেষ হচ্ছে আজ।

ইকবাল মাহমুদ শিক্ষকদের উদ্দেশে বলেন, আপনারাই জাতি গঠনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। শিক্ষকদের সুযোগ-সুবিধা, সামাজিক মর্যাদা, বেতন বৃদ্ধিসহ সব ধরনের উন্নয়নে দুদক পাশে থাকবে জানিয়ে তিনি বলেন, শ্রেণী কক্ষে এমন শিক্ষার ব্যবস্থা করুন যাতে আমাদের সন্তানদের কোচিং সেন্টারে যেতে না হয়। তিনি শিক্ষকদের বেতন-ভাতা, মর্যাদা আরও বৃদ্ধির দাবি জানান।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, একবিংশ শতাব্দীতে যে এগারোটি দেশ বিশ্ব অর্থনীতিতে নেতৃত্ব দেবে, বাংলাদেশ এদের মধ্যে একটি হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।

এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি দায়িত্ব নিতে হবে তরুণ প্রজন্মকে। প্রকৃত শিক্ষার মাধ্যমে তাদের শক্তি, সক্ষমতা এবং সামর্থ্য অর্জন করতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় তরুণ প্রজন্মকে মানবসম্পদে পরিণত করে জনতাত্ত্বিক লভ্যাংশ পেতে হলে অন্যান্য অনুষঙ্গের সঙ্গে গুণগত শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই।

এ প্রসঙ্গে তিনি সততা সংঘের সদস্যসহ ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশে বলেন, তোমরা এ প্লাস কিংবা ফলাফলের পেছনে না ছুটে পরিপূর্ণ জ্ঞান অর্জনে মনোনিবেশ কর। অনুষ্ঠানের শুরুতেই দুদক চেয়ারম্যান সততা সংঘের সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করান।

সমাবেশে দুদক কমিশনার ড. নাসির উদ্দীন আহমেদ বলেন, কোচিং বাণিজ্য বন্ধে অসহায়ত্তের কোনো সুযোগ নেই। যেসব শিক্ষক শ্রেণী কক্ষে পাঠদান না করে শিক্ষার্থীদের কোচিংয়ে যেতে বাধ্য করেন দুদক তাদের তালিকা করবে। তালিকা অনুযায়ী জড়িত কোচিংবাজ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.