সরকার নানা ভাইরাসে আক্রান্ত
jugantor
সরকার নানা ভাইরাসে আক্রান্ত
-নজরুল

  যুগান্তর রিপোর্ট  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, দেশে নানামুখী সংকট চলছে। আমরা করোনার কারণে একটা মাস্ক পরি। কিন্তু সরকারের আরও মাস্ক পরা দরকার। তারা নানা ভাইরাসে আক্রান্ত। এ ধরনের ভাইরাস থেকে বাঁচতে সবার উচিত দুর্নীতিবিরোধী মাস্ক পরা। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পেশাজীবীদের সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে অন্যায়ভাবে চাকরিচ্যুতির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)। নজরুল ইসলাম খান বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মোর্শেদ হাসান খান অত্যন্ত মেধাবী লোক। তিনি ফার্স্ট ক্লাস পেয়েছেন, ম্যাট্রিক ও ইন্টারে স্ট্যান্ড করেছেন। তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তিনি হুশিয়ার করে বলেন, আইন ভঙ্গ করে যাদের চাকরি খেয়েছেন তাদের পুনর্বহাল করতে হবে।

একদিন তাদের পুনর্বহাল হবেই। নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সরকারের হাতে কেউ নিরাপদ নন। আজ দেশের কোথাও মা-বোনেরা নিরাপদ নন। ছাত্রলীগের ছেলেরা মেয়েদের ধর্ষণ করে, আর আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন ওটা ছাত্রলীগের না।

সরকার নানা ভাইরাসে আক্রান্ত

-নজরুল
 যুগান্তর রিপোর্ট 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, দেশে নানামুখী সংকট চলছে। আমরা করোনার কারণে একটা মাস্ক পরি। কিন্তু সরকারের আরও মাস্ক পরা দরকার। তারা নানা ভাইরাসে আক্রান্ত। এ ধরনের ভাইরাস থেকে বাঁচতে সবার উচিত দুর্নীতিবিরোধী মাস্ক পরা। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পেশাজীবীদের সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে অন্যায়ভাবে চাকরিচ্যুতির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)। নজরুল ইসলাম খান বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মোর্শেদ হাসান খান অত্যন্ত মেধাবী লোক। তিনি ফার্স্ট ক্লাস পেয়েছেন, ম্যাট্রিক ও ইন্টারে স্ট্যান্ড করেছেন। তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তিনি হুশিয়ার করে বলেন, আইন ভঙ্গ করে যাদের চাকরি খেয়েছেন তাদের পুনর্বহাল করতে হবে।

একদিন তাদের পুনর্বহাল হবেই। নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সরকারের হাতে কেউ নিরাপদ নন। আজ দেশের কোথাও মা-বোনেরা নিরাপদ নন। ছাত্রলীগের ছেলেরা মেয়েদের ধর্ষণ করে, আর আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন ওটা ছাত্রলীগের না।