মৃত্যুর আগে ঘাতকদের নাম লিখে গেলেন অটোচালক
jugantor
মৃত্যুর আগে ঘাতকদের নাম লিখে গেলেন অটোচালক
লৌহজংয়ে ৮ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

  যুগান্তর রিপোর্ট, মুন্সীগঞ্জ  

০১ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে চালক আশরাফুল ইসলামকে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের চানখারবাড়ি নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আশরাফুলের বাড়ি শ্রীনগর উপজেলার বাঘড়া এলাকায়।

এ ঘটনায় আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরা হল- রুবেল, আকরাম মোল্লা, হাসান, রাজেন, আমির বেপারী, ইমরান তোফাজ্জল, সবুজ শেখ ও কাজল শেখ। তাদের দেয়া তথ্যমতে, ছিনতাই হওয়া অটোরিকশা ও হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাতে একদল দুর্বৃত্ত আশরাফুলের অটোরিকশা ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায়। এ সময় বাধা দিলে দুর্বৃত্তরা তার গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে অটোরিকশা ছিনিয়ে নেয়। এর কিছুক্ষণ পর জ্ঞান ফিরলে আশরাফুল গোয়ালীমান্দ্রা বটতলা এলাকায় যান। পরে স্থানীয়রা আশরাফুলকে প্রথমে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে ঢাকা মেডিকেলে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ আরও জানায়, ছুরিকাঘাতের পর আশরাফুল মাটিতে হাসান ও রাজেন নামে দু’জনের নাম এবং একটি আংশিক মোবাইল নাম্বার লিখে রেখে যান। সেই সূত্র ধরেই প্রথমে হাসান ও রাজেনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যানুযায়ী, বাকিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আবদুল মোমেন পিপিএম জানান, গ্রেফতারদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মৃত্যুর আগে ঘাতকদের নাম লিখে গেলেন অটোচালক

লৌহজংয়ে ৮ ছিনতাইকারী গ্রেফতার
 যুগান্তর রিপোর্ট, মুন্সীগঞ্জ 
০১ অক্টোবর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে চালক আশরাফুল ইসলামকে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের চানখারবাড়ি নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আশরাফুলের বাড়ি শ্রীনগর উপজেলার বাঘড়া এলাকায়।

এ ঘটনায় আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরা হল- রুবেল, আকরাম মোল্লা, হাসান, রাজেন, আমির বেপারী, ইমরান তোফাজ্জল, সবুজ শেখ ও কাজল শেখ। তাদের দেয়া তথ্যমতে, ছিনতাই হওয়া অটোরিকশা ও হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাতে একদল দুর্বৃত্ত আশরাফুলের অটোরিকশা ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায়। এ সময় বাধা দিলে দুর্বৃত্তরা তার গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে অটোরিকশা ছিনিয়ে নেয়। এর কিছুক্ষণ পর জ্ঞান ফিরলে আশরাফুল গোয়ালীমান্দ্রা বটতলা এলাকায় যান। পরে স্থানীয়রা আশরাফুলকে প্রথমে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে ঢাকা মেডিকেলে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ আরও জানায়, ছুরিকাঘাতের পর আশরাফুল মাটিতে হাসান ও রাজেন নামে দু’জনের নাম এবং একটি আংশিক মোবাইল নাম্বার লিখে রেখে যান। সেই সূত্র ধরেই প্রথমে হাসান ও রাজেনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যানুযায়ী, বাকিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আবদুল মোমেন পিপিএম জানান, গ্রেফতারদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।