সহকারীর অপসারণ দাবি দলিল লেখকদের
jugantor
দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ সাব রেজিস্ট্রি অফিস
সহকারীর অপসারণ দাবি দলিল লেখকদের

  কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি  

২৫ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ সাব রেজিস্ট্রি অফিসের অফিস সহকারী লায়লা আক্তার তুলির অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন করেছে দলিল লেখক সমিতি। রোববার সকালে সাব রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে সমিতির ব্যানারে শতাধিক দলিল লেখক মানববন্ধন করে এ দাবি জানান। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাকে অপসারণ করা না হলে কর্মবিরতির ঘোষণা দেন তারা। পরে তারা এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সাব রেজিস্ট্রি বরাবর স্মারকলিপি দেন। দলিল লেখক সমিতির সভাপতি হাজী মো. মহিউদ্দিন বলেন, লায়লা আক্তার তুলি যোগদান করার পর অফিসকে হয়রানির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করেছেন। কর্তৃপক্ষের কাছে আমরা অভিযোগ করেছিলাম। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসাবে আগামী ৫ বছরের জন্য তার বেতন বৃদ্ধি স্থগিত করা হয়। কিন্তু এত কিছুতেও লায়লা আক্তার তুলি সংযত হননি। এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে লায়লা আক্তার তুলি বলেন, এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করব না। আপনি সাব রেজিস্ট্রারের সঙ্গে কথা বলুন। দক্ষিণ কেরানীঞ্জ সাব রেজিস্ট্রার মৃত্যুঞ্জয় শিকারী বলেন, তাকে অপসারণের দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ সাব রেজিস্ট্রি অফিস

সহকারীর অপসারণ দাবি দলিল লেখকদের

 কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি 
২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ সাব রেজিস্ট্রি অফিসের অফিস সহকারী লায়লা আক্তার তুলির অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন করেছে দলিল লেখক সমিতি। রোববার সকালে সাব রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে সমিতির ব্যানারে শতাধিক দলিল লেখক মানববন্ধন করে এ দাবি জানান। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাকে অপসারণ করা না হলে কর্মবিরতির ঘোষণা দেন তারা। পরে তারা এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সাব রেজিস্ট্রি বরাবর স্মারকলিপি দেন। দলিল লেখক সমিতির সভাপতি হাজী মো. মহিউদ্দিন বলেন, লায়লা আক্তার তুলি যোগদান করার পর অফিসকে হয়রানির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করেছেন। কর্তৃপক্ষের কাছে আমরা অভিযোগ করেছিলাম। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসাবে আগামী ৫ বছরের জন্য তার বেতন বৃদ্ধি স্থগিত করা হয়। কিন্তু এত কিছুতেও লায়লা আক্তার তুলি সংযত হননি। এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে লায়লা আক্তার তুলি বলেন, এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করব না। আপনি সাব রেজিস্ট্রারের সঙ্গে কথা বলুন। দক্ষিণ কেরানীঞ্জ সাব রেজিস্ট্রার মৃত্যুঞ্জয় শিকারী বলেন, তাকে অপসারণের দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।