এ বছর দেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৫ শতাংশ
jugantor
আইএমএফের পূর্বাভাস
এ বছর দেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৫ শতাংশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৭ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এ বছর পাঁচ শতাংশ বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।

এর আগে বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে পূর্বাভাস দেয় বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৬ শতাংশ হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে মঙ্গলবার আইএমএফের সদর দপ্তর থেকে প্রকাশিত বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পূর্বাভাস শীর্ষক প্রতিবেদন এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে গত বছরের অক্টোবরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল এ বছরে ৪ দশমিক ৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হতে পারে। নতুন এ প্রতিবেদনে ২০২২ সালে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে যাচ্ছে এর ফলে বিশ্বের গড় প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশ হবে যা আগের পূর্বাভাসের চেয়ে ০ দশমিক ৮ শতাংশ পয়েন্ট বেশি।

এ বছরে ভারতের প্রবৃদ্ধি ১২ দশমিক ৫ শতাংশ, মালদ্বীপের ১৮ দশমিক ৯ শতাংশ, শ্রীলংকার ৪ শতাংশ, নেপালের ২ দশমিক ৯ শতাংশ ও পাকিস্তানের ১ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে বলে আইএমএফ জানিয়েছে।

আইএমএফের এ পূর্বাভাস দেওয়া হয় বছরের ভিত্তিতে। এর আগে ৩১ মার্চ বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে ২০২০-২১ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৬ শতাংশ হতে পারে বলে প্রাক্কলন করা হয়।

যা তাদের গত অক্টোবরের প্রাক্কলনে ছিল ১ দশমিক ৭ শতাংশ আর জানুয়ারির প্রাক্কলনে ছিল ২ শতাংশ। বিশ্বব্যাংক তার রিপোর্টে জানায় ভ্যাকসিন দেওয়ার সাফল্য আর বিশ্ব অর্থনীতি কতটা ঘুরে দাঁড়াবে তার ওপর ভর করে এ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৬ থেকে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে।

আইএমএফের পূর্বাভাস

এ বছর দেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৫ শতাংশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৭ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এ বছর পাঁচ শতাংশ বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।

এর আগে বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে পূর্বাভাস দেয় বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৬ শতাংশ হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে মঙ্গলবার আইএমএফের সদর দপ্তর থেকে প্রকাশিত বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পূর্বাভাস শীর্ষক প্রতিবেদন এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে গত বছরের অক্টোবরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল এ বছরে ৪ দশমিক ৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হতে পারে। নতুন এ প্রতিবেদনে ২০২২ সালে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে যাচ্ছে এর ফলে বিশ্বের গড় প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশ হবে যা আগের পূর্বাভাসের চেয়ে ০ দশমিক ৮ শতাংশ পয়েন্ট বেশি।

এ বছরে ভারতের প্রবৃদ্ধি ১২ দশমিক ৫ শতাংশ, মালদ্বীপের ১৮ দশমিক ৯ শতাংশ, শ্রীলংকার ৪ শতাংশ, নেপালের ২ দশমিক ৯ শতাংশ ও পাকিস্তানের ১ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে বলে আইএমএফ জানিয়েছে।

আইএমএফের এ পূর্বাভাস দেওয়া হয় বছরের ভিত্তিতে। এর আগে ৩১ মার্চ বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে ২০২০-২১ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৬ শতাংশ হতে পারে বলে প্রাক্কলন করা হয়।

যা তাদের গত অক্টোবরের প্রাক্কলনে ছিল ১ দশমিক ৭ শতাংশ আর জানুয়ারির প্রাক্কলনে ছিল ২ শতাংশ। বিশ্বব্যাংক তার রিপোর্টে জানায় ভ্যাকসিন দেওয়ার সাফল্য আর বিশ্ব অর্থনীতি কতটা ঘুরে দাঁড়াবে তার ওপর ভর করে এ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৬ থেকে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন