না.গঞ্জে কাউন্সিলর খোরশেদের বিরুদ্ধে নারীর মামলা
jugantor
গোপনে বিয়ে, ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য
না.গঞ্জে কাউন্সিলর খোরশেদের বিরুদ্ধে নারীর মামলা

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৮ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কুৎসা রটানোর অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার ওরফে খোরশেদ ও ফেরদৌস আক্তার রেহানা ওরফে রেহানা মুসকান নামে এক নারীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। মামলার বাদী সাঈদা আক্তার ওরফে সায়েদা শিউলি ওরফে খুকুমনি। তিনি ফতুল্লা থানার ৩২১নং উত্তর চাষাঢ়ার মৃত মো. জহিরুল হকের মেয়ে। রোববার রাতে ফতুল্লা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেন তিনি।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, খুকুমনি নারায়ণগঞ্জ-মুন্সীগঞ্জ সিএনজি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এবং গার্মেন্ট ব্যবসায়ী। খোরশেদের সঙ্গে তার পরিচয় ছেলেবেলা থেকে। এর আগে খুকুমনির অন্যত্র বিয়ে হয়। তবে স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়। সেই ঘরে সন্তানও রয়েছে। পূর্বপরিচয়ের সূত্র ধরে খোরশেদ ২০২০ সালের ২ আগস্ট নিজেই কাজী নিয়ে গিয়ে ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে খুকুমনিকে বিয়ে করে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে খোরশেদ তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। ২৪ এপ্রিল খোরশেদ ফেসবুক লাইভে এসে তার বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করে। ২৫ এপ্রিল ফেরদৌস আক্তার রেহানাও খোরশেদ খন্দকারের বাসায় বসে লাইভে তার সম্পর্কে কুৎসা রটায়।

গোপনে বিয়ে, ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য

না.গঞ্জে কাউন্সিলর খোরশেদের বিরুদ্ধে নারীর মামলা

 নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৮ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কুৎসা রটানোর অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার ওরফে খোরশেদ ও ফেরদৌস আক্তার রেহানা ওরফে রেহানা মুসকান নামে এক নারীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। মামলার বাদী সাঈদা আক্তার ওরফে সায়েদা শিউলি ওরফে খুকুমনি। তিনি ফতুল্লা থানার ৩২১নং উত্তর চাষাঢ়ার মৃত মো. জহিরুল হকের মেয়ে। রোববার রাতে ফতুল্লা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেন তিনি।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, খুকুমনি নারায়ণগঞ্জ-মুন্সীগঞ্জ সিএনজি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এবং গার্মেন্ট ব্যবসায়ী। খোরশেদের সঙ্গে তার পরিচয় ছেলেবেলা থেকে। এর আগে খুকুমনির অন্যত্র বিয়ে হয়। তবে স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়। সেই ঘরে সন্তানও রয়েছে। পূর্বপরিচয়ের সূত্র ধরে খোরশেদ ২০২০ সালের ২ আগস্ট নিজেই কাজী নিয়ে গিয়ে ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে খুকুমনিকে বিয়ে করে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে খোরশেদ তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। ২৪ এপ্রিল খোরশেদ ফেসবুক লাইভে এসে তার বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করে। ২৫ এপ্রিল ফেরদৌস আক্তার রেহানাও খোরশেদ খন্দকারের বাসায় বসে লাইভে তার সম্পর্কে কুৎসা রটায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন