গাজীপুরে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে মেয়র প্রার্থীরা

  গাজীপুর প্রতিনিধি ২৬ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গাজীপুরে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে মেয়র প্রার্থীরা

উৎসবমুখর পরিবেশে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণার প্রথম দিনে হাসান উদ্দিন সরকার ও জাহাঙ্গীর আলম ঘরে ঘরে ঘুরে ভোট প্রার্থনা করেছেন। এছাড়া শহরের অলিগলি, বাজার, রাস্তার পাশে টাঙানো হয়েছে নির্বাচনী পোস্টার।

এলাকায় এলাকায় মাইকিং, হ্যান্ডবিল দিয়ে প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় রয়েছেন সমর্থক, কর্মীরা। গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নির্মাণ করা হচ্ছে নির্বাচনী ক্যাম্প। বুধবার সকালে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার গাছা এলাকার স্থানীয় আনু মার্কেট থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন।

এ সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী ছাইয়্যেদুল আলম বাবুল, বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য ডা. মাজহারুল আলম, জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. সোহরাব উদ্দিন, শওকত হোসেন সরকারসহ ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সেখানে আয়োজিত এক পথসভায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে হাসান উদ্দিন সরকার প্রার্থীদের মিথ্যাচার থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সব অপরাধের মূল হল মিথ্যাচার করা। মিথ্যাচারের মাধ্যমে জনগণ বিভ্রান্ত হয়। আল্লাহর পরে স্থান হচ্ছে জনগণের।

সুতরাং জনগণ বিভ্রান্ত হলে মানুষ বিপদগ্রস্ত হবে। একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অধিকার আমারও নেই, অন্য কারও নেই। এছাড়া হাসান উদ্দিন সরকার স্থানীয় রশিদ মার্কেট, ইছর কান্দি, কাথোরা, কলমেশ্বর এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালান।

অপরদিকে ছয়দানা এলাকায় নিজ বাসভবনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম দলীয় নেতাকর্মী ও শুভানুধ্যায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এছাড়া বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীদের নির্বাচনী ভাবনা নিয়ে সাক্ষাৎকার দেন।

এ সময় জাহাঙ্গীর আলম গাজীপুর সিটি ময়লার ডাস্টবিনে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে বলেন, স্থানীয় সরকারে বিগত ২০ দলীয় জোটের শাসনামলে আমাদের এখানে রাস্তাঘাট, পয়োনিষ্কাশন ও ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় গাজীপুর একটি ডাস্টবিনের শহরে পরিণত হয়েছে।

আমি প্রথম অবস্থায় এগুলোকে প্রাধান্য দিচ্ছি। ময়লা-আবর্জনা কীভাবে পরিষ্কার করা যায়, কীভাবে ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা যায়। দ্রুত যানজটমুক্ত শহর কীভাবে করা যায় সেটি চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে আমি কাজ করছি।

সেই লক্ষ্যে ১৫ তারিখে ভোট দেয়ার জন্য সবাইকে অনুরোধ করছি। আমি গাজীপুরকে ক্লিন এবং গ্রিন সিটি কর্পোরেশন গড়তে চাই। সাধারণ মানুষ জ্বালাও-পোড়াও চায় না, মামলা-হামলা চায় না, তারা একটি নিরাপদ শহর চায়। এর আগে জাহাঙ্গীর আলম মহিলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

এছাড়া বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির রুহুল আমিন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নাসির উদ্দিন, ইসলামী ঐক্যজোটের ফজলুর রহমান, ইসলামী ফ্রন্টের জালাল উদ্দিন ও স্বতন্ত্র

প্রার্থী ফরিদ উদ্দিনসহ ওয়ার্ড কাউন্সিলররাও এলাকায় গণসংযোগ করে ভোট চাইছেন। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে ৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৩৬। এতে পুরুষ ৫ লাখ ৬৯ হাজার ৯৩৫ এবং ৫ লাখ ৬৭ হাজার ৮০১।

ঘটনাপ্রবাহ : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×