ফতুল্লায় যৌতুক না পেয়ে ঈদের রাতে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম
jugantor
ফতুল্লায় যৌতুক না পেয়ে ঈদের রাতে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

  ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৪ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফতুল্লায় যৌতুক না পেয়ে আরিফ সিকদার নামে এক ব্যক্তি তার স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেছে। ঈদের রাত ৮টায় ফতুল্লার পাগলা নূরবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত স্ত্রী ইয়াসমিন বেগম ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা নিয়ে শুক্রবার সকালে ফতুল্লা মডেল থানায় এসে আরিফ সিকদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ফতুল্লার পাগলা বৌ বাজার এলাকার সোবহান শিকদারের ছেলে আরিফ সিকদার (৪০) ১৮ বছর আগে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তরের টরকী হাতিকাটা এলাকার আব্দুল আজিজের মেয়ে ইয়াসমিন বেগমকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য ইয়াসমিনের সঙ্গে খারাপ আচরণ করাসহ সংসারের প্রতি উদাসীন ছিল আরিফ। একই সঙ্গে স্ত্রী সন্তানের ঠিকমতো ভরণপোষণ করতেন না। প্রায় ২ বছর ধরে আরিফ তার স্ত্রী সন্তানের সঙ্গে বসবাস না করে অন্যত্র থাকেন। এর মধ্যে ২১ জুলাই ঈদের রাত ৮টায় ৪-৫ জন লোকসহ আরিফ বাড়িতে এসে ইয়াসমিনের কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। ইয়াসমিন টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে বটি দিয়ে কপালে, পিঠে ও বাম হাতে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। এ সময় ইয়াসমিনের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে আরিফ তার লোকজন নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে মামলা গ্রহণের সত্যতা নিশ্চিত করে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

ফতুল্লায় যৌতুক না পেয়ে ঈদের রাতে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

 ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৪ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফতুল্লায় যৌতুক না পেয়ে আরিফ সিকদার নামে এক ব্যক্তি তার স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেছে। ঈদের রাত ৮টায় ফতুল্লার পাগলা নূরবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত স্ত্রী ইয়াসমিন বেগম ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা নিয়ে শুক্রবার সকালে ফতুল্লা মডেল থানায় এসে আরিফ সিকদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ফতুল্লার পাগলা বৌ বাজার এলাকার সোবহান শিকদারের ছেলে আরিফ সিকদার (৪০) ১৮ বছর আগে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তরের টরকী হাতিকাটা এলাকার আব্দুল আজিজের মেয়ে ইয়াসমিন বেগমকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য ইয়াসমিনের সঙ্গে খারাপ আচরণ করাসহ সংসারের প্রতি উদাসীন ছিল আরিফ। একই সঙ্গে স্ত্রী সন্তানের ঠিকমতো ভরণপোষণ করতেন না। প্রায় ২ বছর ধরে আরিফ তার স্ত্রী সন্তানের সঙ্গে বসবাস না করে অন্যত্র থাকেন। এর মধ্যে ২১ জুলাই ঈদের রাত ৮টায় ৪-৫ জন লোকসহ আরিফ বাড়িতে এসে ইয়াসমিনের কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। ইয়াসমিন টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে বটি দিয়ে কপালে, পিঠে ও বাম হাতে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। এ সময় ইয়াসমিনের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে আরিফ তার লোকজন নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে মামলা গ্রহণের সত্যতা নিশ্চিত করে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন