জবরদখলের চেষ্টা

ধামরাইয়ে একেএইচ গ্রুপের সঙ্গে জমির মালিকদের সংঘর্ষ

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৫ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ের পারুহলা মৌজায় ভুয়া মালিক সাজিয়ে জমি ক্রয় ও জবরদখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে গ্রিন ফ্যাক্টরি একেএইচ গ্রুপের বিরুদ্ধে। শুক্রবার জমির কাঁচা ধান কেটে জবরদখলের চেষ্টা করে একেএইচের পক্ষে আসা ভাড়াটে লোকজন। ফলে তাদের সঙ্গে জমির মালিকপক্ষের দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। অবশেষে পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে একেএইচ গ্রুপের পক্ষে আসা ভাড়াটে বাহিনীর অভিযান। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিরাজ করছে চরম আতঙ্ক ও থমথমে অবস্থা।

ধামরাইয়ের গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের হাতকোড়া গ্রামের মৃত মো. খেদানী মাতব্বরের ছেলে মো. আবদুল জলিল ও মো. আবদুল কাদের দলিলমূলে পারুহলা মৌজায় আরএস ১৫৫৮ নং দাগে ৪৪ শতাংশ জমি ভোগদখল করে আসছে। আবদুল কাদেরের মৃত্যুর পর ওই জমি তার ভাই মো. আবদুল জলিল ও ছেলে মো. আমির হোসেন এবং আলী আমজাদ হোসেন ভোগদখল করছেন। সম্প্রতি একই গ্রামের মো. বাহার উদ্দিনের ছেলে মো. আবদুল হাই ভুয়া মালিক সেজে ওই জমি একেএইচ গ্রুপের কাছে সাবকবলা বিক্রি করে। জমির প্রকৃত মালিক ও দখলকার ওই জমিতে ইরি-বোরো ধান রোপণ করেন। কিন্তু শুক্রবার বেলা ১১টায় হাতকোড়া গ্রামের মো. শাহিন আলমের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক ভাড়াটে লোক দেশি অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে একেএইচ গ্রুপেরপক্ষে জমির ধান কাটতে আসে। জমির মালিকরা এলাকার লোকজন সঙ্গে নিয়ে একেএইচ গ্রুপের সশস্ত্র লোকদের বাধা দিলে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়। একপর্যায়ে পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এলাকাবাসীর মাঝে নেমে আসে চরম আতঙ্ক। খবর পেয়ে ধামরাই থানা পুলিশ এসে একেএইচ গ্রুপের দখলি অভিযান পণ্ড করে দেয়। এ ব্যাপারে একেএইচ গ্রুপের ম্যানেজার এডমিন মেজর (অব.) মো. সাইফ বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা নেই। কেউ আমাদের এ ব্যাপারে কিছু অবহিতও করেনি।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter