সাঁথিয়ায় সরকারি সড়ক কেটে জামায়াত নেতার পুকুর খনন
jugantor
সাঁথিয়ায় সরকারি সড়ক কেটে জামায়াত নেতার পুকুর খনন

  সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সাঁথিয়া উপজেলার কাশিনাথপুর ইউনিয়নের কাবারিকোলা গ্রামে জামায়াত নেতার বিরুদ্ধে সরকারি সড়ক খনন করে পুকুর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সড়ক না থাকায় কৃষক তার উৎপাদিত ফসল মাঠ থেকে ঘরে তুলতে পারছেন না। মৃত ব্যক্তির সৎকার করতে শ্মশানে যেতে পারছেন না হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ। ২০টি পরিবারের চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এসএ ম্যাপে সড়ক থাকলেও আরএস ম্যাপে পুকুরের সীমানা থেকে কেটে নেওয়া হয়েছে সড়ক।

জানা যায়, উপজেলার কাবারিকোলা মাদ্রাসা থেকে কদ্দুস মোল্লার বাড়ি পর্যন্ত পাকা সড়কের কাবিল মিয়ার বাড়ি হতে শ্মশান হয়ে বেনু মাস্টারের বাড়ি পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার কাঁচা সড়ক। পাকা সড়কের মাথা থেকে প্রায় ৩০০ ফিট সড়ক এসএ ম্যাপে থাকলেও আরএসএ ম্যাপ থেকে কেটে নেওয়া হয়েছে। কেটে নেওয়া অংশ খনন করে পুকুর করেছে কাবারিকোলা গ্রামের জামায়াত নেতা মৃত আ. ওহাব মুন্সীর ছেলে আ. বাছেদ মুন্সী, বাদল মুন্সী, হিরু মুন্সী। এতে ওই কাবারিকোলা মাঠের শতশত একর জমির উৎপাদিত ফসল মাঠ থেকে ঘরে তুলতে পেরেশানিতে পড়েছেন

কৃষকরা। সড়ক না থাকায় ২০টি পরিবারের লোকজনের চলাচল

বাধাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। সড়কের অভাবে শ্মশানে নিয়ে মৃত ব্যক্তির সৎকার করা যাচ্ছে না। এ ছাড়াও ওই পরিবারের খননকৃত দুটি পুকুরের পার্শ্ববর্তী মৃত মানিক মিয়ার ছেলেদের প্রায় ১২ শতক বসতভিটা পুকুরের পেটে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

সাঁথিয়ায় সরকারি সড়ক কেটে জামায়াত নেতার পুকুর খনন

 সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সাঁথিয়া উপজেলার কাশিনাথপুর ইউনিয়নের কাবারিকোলা গ্রামে জামায়াত নেতার বিরুদ্ধে সরকারি সড়ক খনন করে পুকুর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সড়ক না থাকায় কৃষক তার উৎপাদিত ফসল মাঠ থেকে ঘরে তুলতে পারছেন না। মৃত ব্যক্তির সৎকার করতে শ্মশানে যেতে পারছেন না হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ। ২০টি পরিবারের চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এসএ ম্যাপে সড়ক থাকলেও আরএস ম্যাপে পুকুরের সীমানা থেকে কেটে নেওয়া হয়েছে সড়ক।

জানা যায়, উপজেলার কাবারিকোলা মাদ্রাসা থেকে কদ্দুস মোল্লার বাড়ি পর্যন্ত পাকা সড়কের কাবিল মিয়ার বাড়ি হতে শ্মশান হয়ে বেনু মাস্টারের বাড়ি পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার কাঁচা সড়ক। পাকা সড়কের মাথা থেকে প্রায় ৩০০ ফিট সড়ক এসএ ম্যাপে থাকলেও আরএসএ ম্যাপ থেকে কেটে নেওয়া হয়েছে। কেটে নেওয়া অংশ খনন করে পুকুর করেছে কাবারিকোলা গ্রামের জামায়াত নেতা মৃত আ. ওহাব মুন্সীর ছেলে আ. বাছেদ মুন্সী, বাদল মুন্সী, হিরু মুন্সী। এতে ওই কাবারিকোলা মাঠের শতশত একর জমির উৎপাদিত ফসল মাঠ থেকে ঘরে তুলতে পেরেশানিতে পড়েছেন

কৃষকরা। সড়ক না থাকায় ২০টি পরিবারের লোকজনের চলাচল

বাধাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। সড়কের অভাবে শ্মশানে নিয়ে মৃত ব্যক্তির সৎকার করা যাচ্ছে না। এ ছাড়াও ওই পরিবারের খননকৃত দুটি পুকুরের পার্শ্ববর্তী মৃত মানিক মিয়ার ছেলেদের প্রায় ১২ শতক বসতভিটা পুকুরের পেটে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন