এসবিএসি ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ৯ কর্মকর্তাকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ
jugantor
এসবিএসি ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ৯ কর্মকর্তাকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সাউথ বাংলা অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংক লিমিটেডের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান এসএম আমজাদ হোসেনের দুর্নীতি অনুসন্ধানে ব্যাংকের নয় কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

রোববার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রধান কার্যালয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দুদকের উপপরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধানের নেতৃত্বাধীন একটি টিম তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

দুদক সূত্র যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে তারা হলেন- এসবিএসি ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. রফিকুল ইসলাম, ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শওকত আলী, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. মামুনুর রশীদ মোল্লা, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জিয়াউল লতিফ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার মো. খালেদ মোশারেফ, ভিপি ও শাখা প্রধান এসএম ইকবাল মেহেদী, এফএভিপি ও অপারেশন ম্যানেজার মোহা. মঞ্জুরুল আলম, সিনিয়র অফিসার বিদ্যুৎ কুমার মণ্ডল ও এমটিও তপু কামার সাহা।

২২ সেপ্টেম্বর এসব কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে চিঠি দেয় দুদক। এরও আগে ১৯ আগস্ট দুদকের উপ-পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধানকে অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা হিসাবে নিয়োগ করে কমিশন।

দুদক সূত্র জানায়, খুলনা বিল্ডার্স লিমিটেড নামে ঋণ নিয়ে অর্থ আত্মসাতের প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়া গেছে। বাস্তবে এ প্রতিষ্ঠানের কোনো অস্তিত্ব নেই। বিএফআইইউর তদন্ত কমিটিও এ প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব খুঁজে পায়নি।

অস্তিত্বহীন প্রতিষ্ঠানের নামে চেয়ারম্যান থাকাকালীন ক্ষমতার অপব্যবহার করে আমজাদ হোসেন ব্যাংক ঋণ অনুমোদন করান এবং তা তুলে আত্মসাৎ করেন।

আমজাদ হোসেনের সঙ্গে ব্যাংকটির আরেক পরিচালক ক্যাপ্টেন এম মোয়াজ্জেম হোসেনেরও ঋণ জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে।

এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখার পাশাপাশি দুদক আমজাদ হোসেনের অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ের খোঁজখবর নিচ্ছে।

এসবিএসি ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ৯ কর্মকর্তাকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সাউথ বাংলা অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংক লিমিটেডের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান এসএম আমজাদ হোসেনের দুর্নীতি অনুসন্ধানে ব্যাংকের নয় কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

রোববার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রধান কার্যালয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দুদকের উপপরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধানের নেতৃত্বাধীন একটি টিম তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

দুদক সূত্র যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে তারা হলেন- এসবিএসি ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. রফিকুল ইসলাম, ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শওকত আলী, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. মামুনুর রশীদ মোল্লা, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জিয়াউল লতিফ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার মো. খালেদ মোশারেফ, ভিপি ও শাখা প্রধান এসএম ইকবাল মেহেদী, এফএভিপি ও অপারেশন ম্যানেজার মোহা. মঞ্জুরুল আলম, সিনিয়র অফিসার বিদ্যুৎ কুমার মণ্ডল ও এমটিও তপু কামার সাহা।

২২ সেপ্টেম্বর এসব কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে চিঠি দেয় দুদক। এরও আগে ১৯ আগস্ট দুদকের উপ-পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধানকে অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা হিসাবে নিয়োগ করে কমিশন।

দুদক সূত্র জানায়, খুলনা বিল্ডার্স লিমিটেড নামে ঋণ নিয়ে অর্থ আত্মসাতের প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়া গেছে। বাস্তবে এ প্রতিষ্ঠানের কোনো অস্তিত্ব নেই। বিএফআইইউর তদন্ত কমিটিও এ প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব খুঁজে পায়নি।

অস্তিত্বহীন প্রতিষ্ঠানের নামে চেয়ারম্যান থাকাকালীন ক্ষমতার অপব্যবহার করে আমজাদ হোসেন ব্যাংক ঋণ অনুমোদন করান এবং তা তুলে আত্মসাৎ করেন।

আমজাদ হোসেনের সঙ্গে ব্যাংকটির আরেক পরিচালক ক্যাপ্টেন এম মোয়াজ্জেম হোসেনেরও ঋণ জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে।

এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখার পাশাপাশি দুদক আমজাদ হোসেনের অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ের খোঁজখবর নিচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন