টঙ্গীতে পানির জন্য হাহাকার
jugantor
বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটার আট দিনেও ঠিক হয়নি
টঙ্গীতে পানির জন্য হাহাকার

  টঙ্গী পশ্চিম (গাজীপুর) প্রতিনিধি  

২৭ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

টঙ্গীতে আটদিন ধরে পানি পাচ্ছে না প্রায় তিনশ পরিবার। পানির অভাবে জনদুর্ভোগ চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। দক্ষিণ আউচপাড়া বটতলা মগদম মুন্সি রোডে শুক্রবার পানির পাম্পের বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটার বিকল হওয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

ডেসকো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করা হলে তারা বলছেন এটি সিটি করপোরেশনের কাজ। আবার সিটি করপোরেশনে যোগাযোগ করা হলে সিটি কর্তৃপক্ষ বলছেন, এটি ডেসকোর কাজ।

এতে পানির জন্য হাহাকার শুরু হয়েছে। রান্নাবান্না, গোসলসহ যাবতীয় নিত্যনৈমিত্তিক কাজকর্ম সারতে এলাকার বাসিন্দাদের দূরদূরান্ত থেকে গভীর নলকূপের পানি সংগ্রহ করতে হচ্ছে। অন্যথায় বোতলজাত পানির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। এতে নিদারুণ কষ্টে দিনাতিপাত করছেন ওই এলাকার হাজারো মানুষ।

এলাকাবাসীরা জানায়, মগদম মুন্সি রোডে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ড্রেন নির্মাণের কাজ চলছিল। গত শুক্রবার সকালে ভেকু দিয়ে মাটি কাটার সময় ১১ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড বৈদ্যুতিক লাইনটি ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ট্রান্সমিটারটি পুড়ে যায়। এতে বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় গছু প্রেসিডেন্ট বাড়ির পানির পাম্প বন্ধ হয়ে যায়। দীর্ঘ আটদিন ধরে পানি না পেয়ে এলাকার প্রায় তিনশ’ পরিবারের হাজারো বাসিন্দা চরম কষ্টে রয়েছেন।

বাইতুল জান্নাত মসজিদের মুসল্লি শাহজাহান পাঠান বলেন, গত আটদিন ধরে এলাকায় পানি নেই। মসজিদে পানির অভাবে মুসল্লিরা অজু করতে পারছেন না।

যোগাযোগ করা হলে গাজীপুর সিটি করপোরেশন টঙ্গী অঞ্চল-১ এর সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) তানভীর আহমেদ বলেন, বৈদ্যুতিক সংযোগ মেরামতের দায়িত্ব ডেসকোর। ডেসকো কর্তৃপক্ষ তারা তাদের বৈদ্যুতিক লাইন সচল করে দিলেই পাম্পের মাধ্যমে পানি সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী ডেসকো অফিস পশ্চিম জোনের নির্বাহী প্রকৌশলী রায়হান আরেফিন বলেন, এটি ডেসকোর বিদ্যুতের লাইন নয়। এটি সিটি করপোরেশনের লাইন। তাই তা মেরামতের দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের, এখানে ডেসকোর কোনো কাজ নেই। ডেসকোর কোনো লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহে ব্যাঘাত ঘটলে খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মেরামত করে ফেলা হয়।

বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটার আট দিনেও ঠিক হয়নি

টঙ্গীতে পানির জন্য হাহাকার

 টঙ্গী পশ্চিম (গাজীপুর) প্রতিনিধি 
২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

টঙ্গীতে আটদিন ধরে পানি পাচ্ছে না প্রায় তিনশ পরিবার। পানির অভাবে জনদুর্ভোগ চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। দক্ষিণ আউচপাড়া বটতলা মগদম মুন্সি রোডে শুক্রবার পানির পাম্পের বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটার বিকল হওয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

ডেসকো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করা হলে তারা বলছেন এটি সিটি করপোরেশনের কাজ। আবার সিটি করপোরেশনে যোগাযোগ করা হলে সিটি কর্তৃপক্ষ বলছেন, এটি ডেসকোর কাজ।

এতে পানির জন্য হাহাকার শুরু হয়েছে। রান্নাবান্না, গোসলসহ যাবতীয় নিত্যনৈমিত্তিক কাজকর্ম সারতে এলাকার বাসিন্দাদের দূরদূরান্ত থেকে গভীর নলকূপের পানি সংগ্রহ করতে হচ্ছে। অন্যথায় বোতলজাত পানির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। এতে নিদারুণ কষ্টে দিনাতিপাত করছেন ওই এলাকার হাজারো মানুষ।

এলাকাবাসীরা জানায়, মগদম মুন্সি রোডে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ড্রেন নির্মাণের কাজ চলছিল। গত শুক্রবার সকালে ভেকু দিয়ে মাটি কাটার সময় ১১ কেভি আন্ডারগ্রাউন্ড বৈদ্যুতিক লাইনটি ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ট্রান্সমিটারটি পুড়ে যায়। এতে বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় গছু প্রেসিডেন্ট বাড়ির পানির পাম্প বন্ধ হয়ে যায়। দীর্ঘ আটদিন ধরে পানি না পেয়ে এলাকার প্রায় তিনশ’ পরিবারের হাজারো বাসিন্দা চরম কষ্টে রয়েছেন।

বাইতুল জান্নাত মসজিদের মুসল্লি শাহজাহান পাঠান বলেন, গত আটদিন ধরে এলাকায় পানি নেই। মসজিদে পানির অভাবে মুসল্লিরা অজু করতে পারছেন না।

যোগাযোগ করা হলে গাজীপুর সিটি করপোরেশন টঙ্গী অঞ্চল-১ এর সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) তানভীর আহমেদ বলেন, বৈদ্যুতিক সংযোগ মেরামতের দায়িত্ব ডেসকোর। ডেসকো কর্তৃপক্ষ তারা তাদের বৈদ্যুতিক লাইন সচল করে দিলেই পাম্পের মাধ্যমে পানি সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী ডেসকো অফিস পশ্চিম জোনের নির্বাহী প্রকৌশলী রায়হান আরেফিন বলেন, এটি ডেসকোর বিদ্যুতের লাইন নয়। এটি সিটি করপোরেশনের লাইন। তাই তা মেরামতের দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের, এখানে ডেসকোর কোনো কাজ নেই। ডেসকোর কোনো লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহে ব্যাঘাত ঘটলে খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মেরামত করে ফেলা হয়।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন