সিদ্ধিরগঞ্জে মাদক ব্যবসায় অভিযুক্ত ডিবির গাড়িতে

পুলিশের সোর্সের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

  সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি ২১ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তার বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক ব্যবসার অভিযোগ। রয়েছে ডিবি পুলিশ দিয়ে নিরীহ এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীদের হয়রানি এবং গ্রেফতার বাণিজ্যের অনেক অভিযোগও। বিক্ষুব্ধ শতাধিক এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে রোববার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়ার অফিসে গিয়ে তার কাছে অভিযোগ জানান। অভিযুক্ত আশরাফ ওরফে আসাদ সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি দক্ষিণপাড়া এলাকার মৃত বশির উদ্দিনের ছেলে। উত্তেজিত এলাকাবাসী আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়া জানান, আশরাফের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, অস্ত্র, মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে। ইতিপূর্বে আশরাফকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছিল। জামিনে মুক্তি পেয়ে সে ফের মাদক ব্যবসা শুরু করেছে। তার মাদক ব্যবসার কারণে এলাকার যুবসমাজ বিপথগামী হচ্ছে। আশরাফ এলাকার ব্যবসায়ীদের নারায়ণগঞ্জ ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর হুমায়ুন ও এসআই মনিরকে দিয়ে আটক করিয়ে গ্রেফতার বাণিজ্য করাচ্ছে। এতে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ, ক্ষুব্ধ। কোনো কোনো প্রতিবাদকারীকে আশরাফ ওরফে আসাদ ডিবি পুলিশ দিয়ে ক্রসফায়ার দেয়ার হুমকি দিয়েছে বলে এলাকাবাসী ইয়াছিন মিয়াকে অবহিত করেন। এলাকাবাসী ইয়াছিন মিয়ার কাছে আশরাফের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়ার সময় ইয়াছিনের এক কর্মী ফোন করে আশরাফকে ইয়াছিন মিয়ার অফিসে আসতে বলেন। ফোন পেয়ে আশরাফ ইয়াছিন মিয়ার অফিসে আসেন ডিবির গাড়িতে (নং ঢাকা মেট্রো-চ-১৫-৯৫৪০) চড়ে। সেই গাড়িতে ডিবির ইন্সপেক্টর হুমায়ুন, এসআই মনিরসহ ডিবির অন্য সদস্যও ছিলেন। ব্যবসায়ী সাইফুল অভিযোগ করেন, ৪ মাস আগে আশরাফ তার ক্যামিকেল কারখানায় এসে ডিবির এসআই মনিরকে দিয়ে তাকে আটক করায়। পরবর্তী সময়ে আশরাফ ওই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা ডিবির ইন্সপেক্টর হুমায়ুন ও এসআই মনিরকে দিয়ে ব্যবসায়ীকে ছাড়িয়ে আনেন। ইয়াছিনের অফিসের পাশে অভিযুক্ত মাদক ব্যবসায়ী আশরাফের জন্য অপেক্ষা করা ডিবির এসআই মনির জানায়, আশরাফ আগে খারাপ ছিল। এখন ভালো হওয়ার চেষ্টা করছে। তাছাড়া আশরাফকে বলেছিলাম রাজুর (থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক) সঙ্গে মিলেমিশে থাকতে। কিন্তু সে কথা না শোনায় এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ।

এলাকাবাসী জানান, ডিবির সোর্স আশরাফ ওরফে আসাদের কোনো ব্যবসা বা চাকরি না থাকা সত্ত্বেও মাদক ব্যবসা এবং গ্রেফতার বাণিজ্যের ভাগ দিয়ে একটি গাড়ি ক্রয় করেছেন। একই অর্থ দিয়ে দুটি জমি ক্রয় করে। সম্প্রতি সে একটি জায়গায় দোতলা ভবন তৈরি করছে। মিজমিজি দক্ষিণপাড়া এলাকার জনৈক কেরামতের ছেলে নুর হোসেনকে এক মাস আগে ডিবি পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করায় আশরাফ। পরে নূর হাসেন ডিবি পুলিশকে ৫০ হাজার টাকা উৎকোচ দিয়ে ছাড়া পায়। সিদ্ধিরগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং নাসিক ২নং ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক রাজু সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়াকে জানায়, মাদক ব্যবসায়ী ও ডিবি সোর্স আশরাফের মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় নারায়ণগঞ্জ ডিবির পুলিশের ইন্সপেক্টর হুমায়ুন তাকে ফোন করে হুমকি দেয়। আশরাফের কোনো কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ না করতে ইন্সপেক্টর হুমায়ুন শাসিয়েছেন বলে রাজু জানান। এলাকাবাসীর অভিযোগ শুনে থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এলাকাবাসীকে পরামর্শ দেন, অভিযুক্ত মাদক ব্যবসায়ী আশরাফ এবং ডিবির ইন্সপেক্টর হুমায়ুন, এসআই মনিরসহ গ্রেফতার বাণিজ্যের অভিযোগে অভিযুক্ত অন্যান্য পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান এবং জেলা পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ দেয়ার জন্য।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

 

 

mans-world

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
close
close
.