ভারি বর্ষণে তলিয়ে গেছে রাস্তাঘাট

টঙ্গীতে লাখো মানুষ পানিবন্দি

  টঙ্গী প্রতিনিধি ২১ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

টঙ্গীতে লাখো মানুষ পানিবন্দি

টানা ভারি বর্ষণ ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার অপ্রতুলতার কারণে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের শিল্পনগরী টঙ্গীতে পচা ও নোংরা পানিতে তলিয়ে গেছে রাস্তাঘাট। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন এলাকার লাখ লাখ মানুষ।

পানিবন্দি এলাকার স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। নোংরা ও ময়লাযুক্ত পানিতে চলাচল করায় এসব এলাকার লোকজন পানিবাহিত নানা ধরনের রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।

রোববার সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, টঙ্গীর মুদাফা, ভাদাম, সাতাইশ, দেওড়া, খরতৈল, গাজীপুরা, খাঁপাড়া, মিত্তিবাড়ি রোড, এরশাদনগর, হোসেন মার্কেট, লেদুমোল্লা রোড, আউচপাড়া, সফিউদ্দিন সরকার রোড, কলেজ রোড, মোক্তারবাড়ি রোড, সুরতরঙ্গ রোড, বেপারিবাড়ি রোড, চেরাগআলী, দত্তপাড়া, বনমালা রোড, সাহাজ উদ্দিন সরকার একাডেমি রোড, সফিউদ্দিন সরকার কমপ্লেক্সের পেছনের রাস্তা, টঙ্গী-কালীগঞ্জ সড়কের স্টেশন রোড, আরিচপুর, মদিনাপাড়া, মধুমিতা, মরকুন, শিলমুন এলাকার বিভিন্ন রাস্তা পানিতে তলিয়ে গেছে।

এছাড়াও টঙ্গীর নিুাঞ্চলের অনেক বাড়িঘরের ভেতরে পানি প্রবেশ করেছে। এসব এলাকার রাস্তার ওপর দিয়েও পানি প্রবাহিত হতে দেখা গেছে। টঙ্গী থানা কমপ্লেক্স ও সরকারি হাসপাতালের ভেতর পানি প্রবেশ করেছে।

এদিকে টঙ্গী থানার সামনে কোমর সমান পানি জমে থাকায় গাড়ি চলাচল থমকে গেছে। স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী ও অফিস-আদালতমুখী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পড়েছেন চরম বেকায়দায়। ভারি বর্ষণে অসহনীয় দুর্ভোগে পড়েছেন গার্মেন্টকর্মীরা।

টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকার ফলের দোকানি শহীদ মিয়া বলেন, টঙ্গী-কালীগঞ্জ সড়কে পানি জমে থাকায় দুই-তিন দিন যাবৎ দোকান খুলতেই পারিনি। এ রকম পরিস্থিতি আরও দু-একদিন থাকলে আমার মতো নিু আয়ের মানুষের পরিবার-পরিজন নিয়ে বাঁচতে অনেক কষ্ট হবে।

এদিকে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা শাহানা নামে এক রোগী বলেন, কয়েকদিন ধরে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পানি জমে আছে।

এমনকি পুরো হাসপাতাল প্রাঙ্গণটি ময়লা ও নোংরা পানির নিচে থাকায় কেউ হাসপাতালে আসতে সাহস পাচ্ছে না। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. লেহাজ উদ্দিন বলেন, জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানের জন্য সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যে বেশ কিছু ড্রেন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। তবে নির্মাণাধীন ড্রেনের কাজ শেষ হলে জলাবদ্ধতা সমস্যার অনেকটাই সমাধান হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter