বিজিএমইএ বিটিএমএ আড়াই কোটি ডলার ইডিএফ ঋণ পাবে

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তৈরি পোশাক খাতের উদ্যোক্তাদের সংগঠন বিজিএমইএ এবং বস্ত্র খাতের সংগঠন বিটিএমএর সদস্য মিল মালিকদের বৈদেশিক মুদ্রায় ঋণ নেয়ার সীমা বাড়ল। এসব খাতের একজন উদ্যোক্তা বাংলাদেশ ব্যাংকের রফতানি উন্নয়ন তহবিল (ইডিএফ) থেকে সর্বোচ্চ আড়াই কোটি ডলার পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। এতদিন একজন পাঁচ শতাংশ সুদে সর্বোচ্চ ২ কোটি ডলার ঋণ নিতে পারতেন। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, বিজিএমইএ এবং বিটিএমএর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ঋণ সীমা বাড়ানোর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে সুদহার কমানোর জন্য তাদের পক্ষ থেকে দাবি থাকলেও সেটা কার্যকর হয়নি। বর্তমানে লন্ডন ইন্টার ব্যাংক অফার রেট (লাইবর) ২ দশমিক ৪৯ শতাংশ থেকে ২ দশমিক ৫৪ শতাংশের মধ্যে উঠানামা করছে। গত বছরের একই সময়ে লাইবর ছিল দেড় শতাংশের মতো। কয়েকবছর আগে যা এক শতাংশের কম ছিল। লাইবর ব্যাপক হারে বাড়ার ফলে সুদহার কমানোর দাবি জানিয়ে আসছেন ব্যবসায়ীরা।

রফতানিমুখী শিল্পেগুর বিকাশ ও প্রসারের চলমান ধারা অব্যাহত রাখতে বৈদেশিক মুদ্রায় স্বল্প সুদে ঋণ সুবিধা দেয়ার লক্ষ্যে ইডিএফ তহবিল গঠিত হয়। এ তহবিলের বর্তমান আকার ৩০০ কোটি ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্যমান ২৫ হাজার কোটি টাকার বেশি। রফতানিমুখী পণ্য উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ যেমন- তুলা, সুতা, শিল্পেগুর কাঁচামাল আমদানিতে রফতানিকারকরা এখান থেকে ঋণ পান। লাইবরের সঙ্গে আড়াই শতাংশ যোগ করে এ তহবিলের সুদহার নির্ধারিত হয়। তৈরি পোশাক, বস্ত্র, প্লাস্টিকসহ রফতানিকারকরা এখান থেকে ঋণ নিতে পারেন। এ তহবিল থেকে বেশি ঋণ নেন বস্ত্র ও তৈরি পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা।

সার্কুলারে বলা হয়, বিজিএমইএ এবং বিটিএমএর সদস্য মিলগুলোর ইডিএফ থেকে ঋণ নেয়ার সীমা বৃদ্ধি করে আড়াই কোটি ডলার নির্ধারণ করা হল। বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী (এডি) ব্যাংক শাখার মাধ্যমে গ্রাহকরা আবেদন করে এ ঋণ নিতে পারেন। এর আগে ২০১৬ সালের জুনে বিজিএমএর সদস্য মিলের জন্য ঋণ সীমা দেড় কোটি ডলার থেকে ২ কোটি ডলার করা হয়।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.