মালিকদের সংবাদ সম্মেলন

বীমা সেবায় ভ্যাট প্রত্যাহার দাবি

প্রকাশ : ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

আগামী ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে বীমা খাতের এজেন্ট কমিশনের ওপর নেয়া মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) প্রত্যাহার চায় মালিক পক্ষ। তারা বলেন, একই ব্যবসার ওপর দু’বার কর নেয়া হচ্ছে। সোমবার রাজধানীর পুরানা পল্টনে বীমা মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিআইএ) সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিআইএর সভাপতি মো. শেখ কবির হোসেন। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রথম ভাইস-প্রেসিডেন্ট প্রফেসর রুবিনা হামিদ, ভাইস প্রেসিডেন্ট একেএম মনিরুল হক, সদস্য নাসির উদ্দিন আহমেদ ও জালালুল আজিম প্রমুখ।

ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রস্তাবে বলা হয়, বীমা কোম্পানিগুলো প্রতিবছর বোনাসের ওপর কর কেটে রাখে। এতে গ্রাহকরা বীমা করতে নিরুৎসাহিত হয়। পৃথিবীর অনেক দেশেই এ ধরনের কর নেই। ফলে বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত। বিআইএর নেতারা বলেন, লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ক্ষেত্রে এজেন্টরা যে কমিশন পায়, ওই কমিশনের ওপর ৫ শতাংশ অগ্রিম আয়কর কেটে রাখা হয়। এরপরও এজেন্ট কমিশনের ১৫ শতাংশ ভ্যাট রয়েছে। বিষয়টি এজেন্টরা আদালতের শরণাপন্ন হয়েছে। কিন্তু বিষয়টি আদালতের বাইরে নিষ্পত্তি হওয়া উচিত।

শেখ কবির হোসেন বলেন, এজেন্টরা কোম্পানির কাছ থেকে যে কমিশন পায়, তার আয় এবং এই কমিশনের আয়ের ওপর থেকে ৫ শতাংশ হারে আয়কর দিচ্ছে। এরপর আবারও কমিশনের ওপর ১৫ শতাংশ হারে উৎসে কর দিতে হয়। ফলে একই ব্যবসার ওপর দুইবার কর নেয়া হচ্ছে। লাইফ ইন্স্যুরেন্সের পলিসি হোল্ডারদের পলিসি বোনাসের ওপর ৫ শতাংশ গেইন ট্যাক্স রয়েছে তা প্রত্যাহার করা উচিত। এছাড়াও পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির মতোই বীমা কোম্পানির কর্পোরেট কর ২৫ শতাংশ করার দাবি জানান তিনি।