মাদকের বিরুদ্ধে সব দলের ঐকমত্য চাই : ওবায়দুল কাদের

ঈদযাত্রায় ভোগান্তি সহনীয় পর্যায়ে থাকবে

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৩ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মাদকের বিরুদ্ধে সব রাজনৈতিক দলের ঐকমত্য চেয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে ঢাকার নোয়াখালী সমিতি আয়োজিত ইফতারের অনুষ্ঠানের আগে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘মাদক একটা সামাজিক সমস্যা। এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা দরকার। এ বিষয়ে অন্তত সব রাজনৈতিক দলের ঐকমত্য গড়ে তোলা দরকার।’

সরকারের মাদকবিরোধী অভিযান নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকারের কোনো ভালো কাজ বিএনপির ভালো লাগবে না, এটাই স্বাভাবিক। যারে দেখতে নারি, তার চলন বাঁকা। সারা দেশে মাদকবিরোধী যে অভিযান চলছে, তাতে দেশের মানুষ খুশি, মানুষ প্রশংসা করছে। কিন্তু বিএনপির এটা ভালো লাগছে না।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘এটা জনগণের বহু প্রত্যাশিত অভিযান। আজকে সুনামির মতো ছড়িয়ে পড়ছে মাদক। তরুণ সমাজের একটা অংশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে মাদক। এ অবস্থায় এ ধরনের অভিযান শহর থেকে গ্রাম সর্বত্রই প্রশংসিত হচ্ছে। সর্বনাশা ধ্বংসের পথ থেকে তরুণ সমাজকে ফিরিয়ে আনার যুগান্তকারী পদক্ষেপ এ অভিযান।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি আজ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিষোদগার ছাড়া আর কি করছে? তারা এ পর্যন্ত মাদকের মতো, সন্ত্রাসের মতো, জঙ্গিবাদের মতো ঘটনা নিয়ে কোনো কথা বলেনি। মাদকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া এ দেশে কোনো রাজনীতিক দল কথা বলেনি।’

মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘাত হওয়াকে স্বাভাবিক ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মাদক ব্যবসা যারা করে তারা শক্তিশালী চক্র। তাদের সঙ্গে মোকাবেলা করতে হলে মুখোমুখি সংঘাত হতেই পারে।

ঈদযাত্রায় ভোগান্তি সহনীয় পর্যায়ে থাকবে : আসন্ন ঈদযাত্রা হয়তো ভোগান্তিমুক্ত হবে না, তবে তা সহনীয় পর্যায়ে থাকবে। মঙ্গলবার দুপুরে মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া অংশের মেঘনা সেতু এলাকায় আসন্ন ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করা ও টোল প্লাজা ব্যবস্থাপনা নিয়ে স্টেক-হোল্ডারদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, আগামী ঈদে ভাঙা রাস্তার জন্য যাতে ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তি না হয় সেজন্য জুনের ৮ তারিখের মধ্যে রাস্তা মেরামতের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। দরকার হলে দিনের পাশাপাশি সারারাত মেরামত কাজ চলবে।

এক্সেল লোড স্টেশনের দুর্নীতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঈদের সময় টোল সংক্রান্ত ভোগান্তি বা দুর্নীতির তথ্য পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এছাড়াও ঈদের আগের ৪ দিন আর পরের চারদিন ২৪ ঘণ্টা সিএনজি স্টেশন চালু রাখা এবং উল্টাপথে ভিআইপি এলে তাদের আটকে দেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

এ সময় মন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পদ্ম সেতু ও রাস্তা নির্মাণ কাজ নিয়ে কোনো দুর্নীতির অভিযোগ উঠাতে পারেনি। কিন্তু ছোট ছোট কাজের মানের যে অবস্থা, এক পশলা বৃষ্টি হলেই রাস্তার পিচ-ঢালাই উঠে যাবে এমন কাজ করার দরকার কি।

গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী পুলিশকে নির্দেশ দিয়ে বলেন, এমপি-মন্ত্রীসহ যে কোনো ভিআইপি গাড়ি রং সাইডে আসলে মুখের দিকে না তাকিয়ে জরিমানা করবেন, সেটা আমার গাড়ি হলে আমারটাকেও করবেন। অ্যাক্সিডেন্টে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে ছোট ছোট যানবাহনের কারণে। মোটরসাইকেলে তিনজন উঠে, কারও মাথায় হেলমেট থাকে না, ইজিবাইক ধাক্কা লাগলে সব যাত্রী মরে যায়। এজন্য বাংলাদেশে মৃত্যুর হার এত বেশি। সড়ক-মহাসড়কের পাশে যে সংস্থা আবর্জনা ডাম্পিং করবে সেই অফিসের সামনে ময়লা ট্রাকে করে রেখে আসার নির্দেশ দেন তিনি।

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য নাসিম ওসমান, লিয়াকত আলী খোকা, সুবিদ আলী ভূঁইয়া, নজরুল ইসলাম বাবু এবং নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ ও কুমিল্লার জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপাররা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: jugant[email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.