শ্যামপুরে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী কচির সহযোগী গুলিবিদ্ধ

প্রকাশ : ২৩ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

শ্যামপুরের জুরাইনে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী কচির এক সহযোগী গুলিবিদ্ধ হয়েছে। তার নাম রাজন ওরফে কানা রাজন (৩০)। সোমবার রাত ২টার দিকে জুরাইন কবরস্থানের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শ্যামপুর থানার এএসআই নূর আলম আহত হয়েছেন। তাকে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশের ওয়ারী বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন যুগান্তরকে এসব তথ্য জানান।

ডিসি ফরিদ উদ্দিন বলেন, সোমবার রাত ১০টার দিকে এক ব্যক্তির কাছ থেকে একটি টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ছিনতাইয়ের ৩১ হাজার টাকা এবং একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। তাকে থানায় আনার পর পুলিশের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছে অস্ত্র আছে বলে পুলিশকে জানায়। রাত ২টার দিকে শ্যামপুর থানার ওসি মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে তাকে নিয়ে জুরাইন কবরস্তানের পাশে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে সেখানে ওতপেতে থাকা তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এবং ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে রাজন বাম পায়ের হাঁটুর নিচে গুলিবিদ্ধ হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি অস্ত্র ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

ওসি মিজানুর রহমান জানান, আহতাবস্থায় রাজনকে প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাকে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (পঙ্গু হাসপাতাল) স্থানান্তর হয়। তিনি জানান, রাজন একজন পেশাধার কিলার। তার নামে বেশ কয়েকটি মামলা আছে। সোমবার রাতের ঘটনায় তার নামে তিনটি মামলা হয়েছে।