অবৈধ সম্পদ ও অর্থ পাচারের অভিযোগ

একে আজাদকে দুদকে সাড়ে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ

প্রকাশ : ২৩ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

ভ্যাট ও ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে অবৈধ সম্পদ অর্জন ও দেশের বাইরে অর্থ পাচারের অভিযোগে অনুসন্ধানে এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি ও হামীম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক একে আজাদকে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের পরিচালক ও অনুসন্ধান কর্মকর্তা মীর মো. জয়নুল আবেদিন শিবলী মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় সংস্থাটির প্রধান কার্যালয়ে একে আজাদকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। জিজ্ঞাসাবাদ শেষ হয় দুপুর ১টায়।

দুদক কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় একে আজাদ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমাকে ডাকা হয়েছিল। আমি আমার বক্তব্য দুদককে জানিয়েছি। এর সত্যতা তারা খতিয়ে দেখবে।’ অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়ার অভিযোগ ষড়যন্ত্রমূলক কিনা সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘এটা তদন্তাধীন বিষয়, মন্তব্য করতে চাচ্ছি না।’

একে আজাদের বিষয়ে অনুসন্ধানের বিষয়ে দুদকের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা যুগান্তরকে বলেন, তার (একে আজাদ) বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকার কর ফাঁকি দিয়ে ঘোষিত আয়ের বাইরে হাজার কোটি টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পেয়ে এ বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করে দুদক।

এদিকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে একে আজাদ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বলে জানা গেছে। তিনি অনুসন্ধান কর্মকর্তাকে তার বক্তব্যের সমর্থনে বেশ কিছু ডকুমেন্টও সরবরাহ করেন। আরও কিছু ডকুমেন্ট তিনি পরে দেবেন বলেন জানিয়েছেন।