শেখ কামাল ছাত্র ও যুব সমাজের আদর্শের প্রতীক ছিলেন: বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী
jugantor
শেখ কামাল ছাত্র ও যুব সমাজের আদর্শের প্রতীক ছিলেন: বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

  রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৬ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেছেন, শহিদ শেখ কামালকে জাতি আজীবন স্মরণ রাখবে। শেখ কামাল সেই সময়ে ছাত্র ও যুব সমাজের আদর্শের প্রতীক ছিলেন। ক্রীড়াঙ্গন, মুক্তিযোদ্ধা, সামরিক বাহিনীতেও তার রয়েছে ব্যাপক অবদান। শহিদ শেখ কামালের ৭৩তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে শুক্রবার সকালে রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় প্রাঙ্গণে শহিদ শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আরও বলেন, শহিদ শেখ কামাল ছিলেন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। স্বাধীনতা-উত্তর যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠন ও পুনর্বাসন কর্মসূচির এবং সমাজের পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়নে সমাজ চেতনায় উদ্বুদ্ধকরণে মঞ্চনাটক আন্দোলনের ক্ষেত্রে শেখ কামাল ছিলেন প্রথম সারির সংগঠক। তিনি বন্ধু শিল্পীদের নিয়ে গড়ে তুলেছিলেন ‘স্পন্দন’ শিল্পীগোষ্ঠী। এছাড়া ছিলেন ঢাকা থিয়েটারের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতাও। অভিনেতা হিসেবেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যাঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত ছিলেন।

শৈশব থেকে ফুটবল, ক্রিকেট, হকি, বাস্কেটবলসহ বিভিন্ন খেলাধুলায় খুবই উৎসাহ ছিল শেখ কামালের। তিনি উপমহাদেশের অন্যতম ক্রীড়া সংগঠন ও আধুনিক ফুটবলের প্রবর্তক আবাহনী ক্রীড়াচক্রের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ নুসরাত জাহান। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান শাহরিয়ার পান্না সোহেল, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতিকুল ইসলাম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাসুদ মজুমদার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আমান উল্লাহসহ অনেকে।

শেখ কামাল ছাত্র ও যুব সমাজের আদর্শের প্রতীক ছিলেন: বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

 রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৬ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেছেন, শহিদ শেখ কামালকে জাতি আজীবন স্মরণ রাখবে। শেখ কামাল সেই সময়ে ছাত্র ও যুব সমাজের আদর্শের প্রতীক ছিলেন। ক্রীড়াঙ্গন, মুক্তিযোদ্ধা, সামরিক বাহিনীতেও তার রয়েছে ব্যাপক অবদান। শহিদ শেখ কামালের ৭৩তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে শুক্রবার সকালে রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় প্রাঙ্গণে শহিদ শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আরও বলেন, শহিদ শেখ কামাল ছিলেন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। স্বাধীনতা-উত্তর যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠন ও পুনর্বাসন কর্মসূচির এবং সমাজের পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়নে সমাজ চেতনায় উদ্বুদ্ধকরণে মঞ্চনাটক আন্দোলনের ক্ষেত্রে শেখ কামাল ছিলেন প্রথম সারির সংগঠক। তিনি বন্ধু শিল্পীদের নিয়ে গড়ে তুলেছিলেন ‘স্পন্দন’ শিল্পীগোষ্ঠী। এছাড়া ছিলেন ঢাকা থিয়েটারের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতাও। অভিনেতা হিসেবেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যাঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত ছিলেন।

শৈশব থেকে ফুটবল, ক্রিকেট, হকি, বাস্কেটবলসহ বিভিন্ন খেলাধুলায় খুবই উৎসাহ ছিল শেখ কামালের। তিনি উপমহাদেশের অন্যতম ক্রীড়া সংগঠন ও আধুনিক ফুটবলের প্রবর্তক আবাহনী ক্রীড়াচক্রের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ নুসরাত জাহান। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান শাহরিয়ার পান্না সোহেল, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতিকুল ইসলাম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাসুদ মজুমদার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আমান উল্লাহসহ অনেকে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন