ক্যান্সার চিকিৎসার উন্নয়নে আলো ভুবন ট্রাস্টের আত্মপ্রকাশ
jugantor
ক্যান্সার চিকিৎসার উন্নয়নে আলো ভুবন ট্রাস্টের আত্মপ্রকাশ

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৪ জুলাই ২০১৮, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বেসরকারি উদ্যোগে দেশে ক্যান্সার চিকিৎসার দক্ষ ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন চিকিৎসা পদার্থবিদ (মেডিকেল ফিজিসিস্ট) তৈরি করতে প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট করার উদ্যোগ নিয়েছে ‘আলো ভুবন ট্রাস্ট’ নামের একটি সংগঠন। এ লক্ষ্যে সংগঠনটি সাউথ এশিয়া সেন্টার ফর মেডিকেল ফিজিক্স অ্যান্ড ক্যান্সার রিসার্চ সেন্টার করার পরিকল্পনা নিয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমানে বাংলাদেশে ক্যান্সার চিকিৎসায় আধুনিক প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি রয়েছে। রেডিওথেরাপি পদ্ধতি ক্যান্সার চিকিৎসায় একটি স্বল্পমূল্য ও নিরাময়যোগ্য চিকিৎসা। রেডিওথেরাপি পদ্ধতিতে অনকোলজিস্টদের পাশাপাশি মেডিকেল ফিজিসিস্ট অপরিহার্য। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশে ১৬০ মিলিয়ন জনসংখ্যার জন্য ১৬০টি টেলিথেরাপি মেশিন, ৩২০ জন মেডিকেল ফিজিসিস্ট, ৬০০ অনকোলজিস্ট ও সমপরিমাণ টেকনিশিয়ান দরকার। কিন্তু বাংলাদেশে মেডিকেল ফিজিসিস্ট সংখ্যা মাত্র ৩০ জন, টলিথেরাপি মেশিনের সংখ্যা প্রায় ২২টি এবং মাত্র ১৫০ জন অনকোলজিস্ট, যা চাহিদার তুলনায় সামান্য। এই স্বল্পসংখ্যক জনগোষ্ঠীরও উন্নত প্রযুক্তির প্রশিক্ষণের অভাব রয়েছে। ফলে দেশের মানুষের সুচিকিৎসা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক ড. গোলাম আবু জাকারিয়া, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. হাসিন অনুপমা আজহারী।

ক্যান্সার চিকিৎসার উন্নয়নে আলো ভুবন ট্রাস্টের আত্মপ্রকাশ

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৪ জুলাই ২০১৮, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বেসরকারি উদ্যোগে দেশে ক্যান্সার চিকিৎসার দক্ষ ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন চিকিৎসা পদার্থবিদ (মেডিকেল ফিজিসিস্ট) তৈরি করতে প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট করার উদ্যোগ নিয়েছে ‘আলো ভুবন ট্রাস্ট’ নামের একটি সংগঠন। এ লক্ষ্যে সংগঠনটি সাউথ এশিয়া সেন্টার ফর মেডিকেল ফিজিক্স অ্যান্ড ক্যান্সার রিসার্চ সেন্টার করার পরিকল্পনা নিয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমানে বাংলাদেশে ক্যান্সার চিকিৎসায় আধুনিক প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি রয়েছে। রেডিওথেরাপি পদ্ধতি ক্যান্সার চিকিৎসায় একটি স্বল্পমূল্য ও নিরাময়যোগ্য চিকিৎসা। রেডিওথেরাপি পদ্ধতিতে অনকোলজিস্টদের পাশাপাশি মেডিকেল ফিজিসিস্ট অপরিহার্য। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশে ১৬০ মিলিয়ন জনসংখ্যার জন্য ১৬০টি টেলিথেরাপি মেশিন, ৩২০ জন মেডিকেল ফিজিসিস্ট, ৬০০ অনকোলজিস্ট ও সমপরিমাণ টেকনিশিয়ান দরকার। কিন্তু বাংলাদেশে মেডিকেল ফিজিসিস্ট সংখ্যা মাত্র ৩০ জন, টলিথেরাপি মেশিনের সংখ্যা প্রায় ২২টি এবং মাত্র ১৫০ জন অনকোলজিস্ট, যা চাহিদার তুলনায় সামান্য। এই স্বল্পসংখ্যক জনগোষ্ঠীরও উন্নত প্রযুক্তির প্রশিক্ষণের অভাব রয়েছে। ফলে দেশের মানুষের সুচিকিৎসা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক ড. গোলাম আবু জাকারিয়া, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. হাসিন অনুপমা আজহারী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন