পুলিশ সদর দফতরে বৈঠক

দূরপাল্লার গাড়িতে দু’জন করে চালক রাখার পরামর্শ

সম্মত নয় মালিক-শ্রমিকরা

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৭ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দূরপাল্লার গাড়িতে দু’জন করে চালক নিয়োগ দিতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাদের পরামর্শ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। তবে এতে অসম্মতি জানিয়ে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতারা বলেছেন, বর্তমান বাস্তবতায় এটা সম্ভব নয়। সড়ক-মহাসড়কে ঝুঁকি কমানো নিয়ে বৃহস্পতিবার পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন আইজিপি।

পুলিশ সদর দফতরে অনুষ্ঠিত বৈঠকে আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ এবং বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি ফারুক তালুকদার সোহেল বক্তব্য রাখেন। এ সময় পুলিশের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তারা ও মালিক-শ্রমিক সংগঠনগুলোর নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে এবং সড়ক-মহাসড়কে ঝুঁকি কমাতে নানা পদক্ষেপ নেয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়। সড়ক দুর্ঘটনা রোধ এবং সার্বিকভাবে ট্রাফিক শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে করণীয় বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে দক্ষ চালক নিশ্চিত করার বিষয়ে বেশি জোর দেয়া হয়েছে। চালক যাতে একটানা দীর্ঘক্ষণ গাড়ি না চালান সে বিষয়ে মালিকদের খেয়াল রাখতে বলা হয়েছে। মজুরি দৈনিক বা চুক্তিভিত্তিক না রেখে মাসিক বেতনের ভিত্তিতে চালক নিয়োগের পরামর্শ দেয়া হয়। ভুয়া লাইসেন্স ঠেকাতে চালকদের জন্য বিশেষ কার্ডের ব্যবস্থার বিষয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, চালকদের জন্য এমন এক ধরনের কার্ডের ব্যবস্থা করতে হবে, যে কার্ড পাঞ্চ করা ছাড়া গাড়ি স্টার্ট নেবে না। এটা নিশ্চিত করা গেলে ভুয়া লাইসেন্স রোধ করা সম্ভব। বৈঠক থেকে বিআরটিএকে ঢেলে সাজাতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

বৈঠক সূত্র জানায়, জেলাপর্যায়ে এসপিরা যাতে নিয়মিত পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন সেটি নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী। পুলিশের পক্ষ থেকে বাস মালিক ও শ্রমিক নেতাদের উদ্দেশে বলা হয়- চালকদের মূল কাজ হল যাত্রীদের নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছে দেয়া। এ কাজটি যাতে সঠিকভাবে হয় সে বিষয়ে মালিক ও শ্রমিক নেতাদের যথাযথ তদারকি করতে হবে। সব গাড়ি একই সফটওয়্যারের আওতায় আনার আহ্বান জানিয়ে আইজিপি বলেন, কোন গাড়ি কখন ছাড়ল তা নির্ধারণে ডিজিটাল ব্যবস্থা থাকলে কেউ পাল্লা দিয়ে গাড়ি চালাবে না। কারণ পরে গাড়ি ছেড়ে চালক আগে টার্মিনালে পৌঁছলেও তিনি নতুন ট্রিপ পাবেন না।

আইজিপি ড. জাবেদ বলেন, অত্যন্ত সফলভাবে ট্রাফিক সপ্তাহ-২০১৮ এর কার্যক্রম শেষ হয়েছে। ১০ দিনের এ ট্রাফিক সপ্তাহের কার্যক্রমের ফলে দেশের মহাসড়কে আগের তুলনায় অনেকাংশে শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter