সোনারগাঁয়ে ডাকাত আতংকে রাত জেগে পাহারা

  যুগান্তর রিপোর্ট, সোনারগাঁ ২১ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সোনারগাঁও

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার সর্বত্র এখন ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। রাতভর বিভিন্ন পাড়া, মহল্লা, রাস্তাঘাট ও গ্রামে গ্রামে ডাকাতদের প্রতিহত করতে এলাকার শত শত লোক দলবদ্ধ হয়ে পাহারা দিচ্ছেন।

এ কাজে উৎসাহ জোগাতে সোনারগাঁ থানা পুলিশ গ্রামবাসীদের লাঠিসোটা, দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র জোগান ও শুকনো খাবার সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করছে। পুলিশের পাশাপাশি এলাকাবাসী পাহারা বসালেও বন্ধ হয়নি ডাকাত আতঙ্ক।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে বারদী, সনমান্দি, নোয়াগাঁও, জামপুর, সাদীপুর, কাঁচপুর ও পিরোজপুর ইউনিয়নের সর্বত্র এখন ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। এছাড়াও সোনারগাঁ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডেও প্রতিনিয়ত ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। রাতভর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের টহল জোরদার করা হলেও ডাকাতদের হানা দেয়া বন্ধ হচ্ছে না। এ কারণে পুলিশের উদ্যোগে গ্রামে গ্রামে বসানো হয়েছে বড় ধরনের পাহারা। এলাকার শত শত লোক রাতভর টেঁটা, বল্লম, রড ও লাঠিসোটা হাতে নিয়ে এলাকা ডাকাতমুক্ত রাখতে পাহারা দিচ্ছে।

শুক্রবার রাতেও উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের নানাখী মাটিয়ারচক এলাকায় ফসলি ক্ষেতের পাশে বসে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল একদল ডাকাত। এ সময় স্থানীয় এক কৃষক ক্ষেতে গিয়ে অপরিচিত লোকজন দেখে তাদের পরিচয় জিজ্ঞাসা করে। ওই কৃষককে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়ে ডাকাত দল গ্রামে প্রবেশ করে। পরে এলাকাবাসী বিষয়টি টের পেয়ে গ্রামের মসজিদে মসজিদে ডাকাত ডাকাত বলে মাইকিং করলে নানাখী, নয়াপুর, বাঘরী, সুখেরটেক ও ললাটিসহ আশপাশের সকল গ্রামের শত শত লোক লাঠি, টেঁটা, বল্লমসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ডাকাতদের ধাওয়া করে। এ সময় ডাকাত দল পালিয়ে যায়।

নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. ইউসুফ দেওয়ান জানান, তার ইউনিয়নে ও তার আশপাশের কয়েকটি ইউনিয়নে এখন ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। ডাকাত দল প্রতিদিন রাতে বিভিন্ন বাড়িতে হানা দেয়ার চেষ্টা করছে। পুলিশের পাশাপাশি এলাকাবাসী পাহারা দেয়ায় এলাকায় ডাকাতি অনেকটা রোধ করা সম্ভব হচ্ছে। সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, ডাকাতদের গ্রেফতার করতে পুলিশ সবসময়ই কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে অনেক ডাকাত সদস্যকে পুলিশ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। পুলিশের উদ্যোগে গ্রামে গ্রামে পাহারা বসানো হয়েছে।

pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

mans-world

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.