টেনিসকে বিদায় জানাচ্ছেন মারে

  এএফপি, মেলবোর্ন ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মারে,

দুঃসময় পেছনে ফেলে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করেছেন বন্ধু নোভাক জোকোভিচ। চোটকে হার মানিয়ে দাপটের সঙ্গে খেলে যাচ্ছেন দুই অগ্রজ রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদালও। কিন্তু টেনিসের বিগ ফোরের আরেক নক্ষত্র অ্যান্ডি মারে মাত্র ৩১ বছর বয়সেই মনের গহিনে শুনে ফেললেন শেষের ডাক।

বছরের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগে শুক্রবার মেলবোর্নে এক সংবাদ সম্মেলনে চোখের জলে বুক ভাসিয়ে মারে জানালেন, এ বছরই টেনিসকে বিদায় জানাতে যাচ্ছেন তিনি। চোটের থাবায় বিপর্যস্ত সাবেক নাম্বার ওয়ান ব্রিটিশ তারকা ভেবেছিলেন, আগামী জুনে ঘরের কোর্টে প্রিয় উইম্বলডনে খেলে অবসর নেবেন। কিন্তু শরীর সায় না দেয়ায় সেই চাওয়া পূরণের সম্ভাবনা নিয়ে তিনি নিজেই সন্দিহান।

নিতম্ব ও কোমরের চোটের সঙ্গে দীর্ঘ তিন বছরের লড়াইয়ে ক্লান্ত মারে জানালেন, এবারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনই হতে পারে তার ক্যারিয়ারের সমাপ্তিরেখা। প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে আর খেলা চালিয়ে যেতে পারছেন না তিনি। সোমবার শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন।

কাল সংবাদ সম্মেলনে আগাম অবসরের আভাস দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন মারে। তাকে এভাবে কাঁদতে দেখে হতভম্ব সাংবাদিকরাও অশ্রু আটকে রাখতে পারেননি। ২০১৬ সালে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় উইম্বলডন জয়ের পর আর কোনো গ্র্যান্ডস্লামের ফাইনালে উঠতে পারেননি মারে।

কোমরে অস্ত্রোপচারের পর দীর্ঘ সময় ছিলেন কোর্টের বাইরে। নেমে গেছেন র‌্যাংকিংয়ের ২৩০ নম্বরে। ২০১৩ সালে প্রথম ব্রিটিশ হিসেবে ৭৭ বছর পর উইম্বলডন জিতেছিলেন মারে। তিনটি গ্র্যান্ডস্লাম শিরোপার পাশাপাশি অলিম্পিকে জিতেছেন দুটি স্বর্ণপদক। পেয়েছেন ‘নাইট’ খেতাব। চাইলে স্বরূপে ফেরার লড়াই চালিয়ে যেতে পারতেন।

কিন্তু ব্যথা অসহনীয় পর্যায়ে চলে যাওয়ায় থামার কঠিন সিদ্ধান্তটা নিতেই হল মারেকে, ‘কিছু সীমাবদ্ধতা নিয়ে খেলে যেতে পারি আমি। কিন্তু এত সীমাবদ্ধতা ও প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে খেলা বা অনুশীলন একদমই উপভোগ করতে পারছি না। এই ব্যথা নিয়ে আছি প্রায় ২০ মাস। ব্যথাটা অনেক বেশি, চিন্তাও করা যায় না এমন। উইম্বলডনে খেলে থামতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তা পারব কি না বলতে পারছি না। আমি নিশ্চিত নই এই ব্যথা নিয়ে আরও চার-পাঁচ মাস খেলতে পারব কি না। এই অস্ট্রেলিয়ান ওপেনই আমার শেষ টুর্নামেন্ট হতে পারে।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×