বিপিএলে প্রথম সেঞ্চুরি অচেনা ইভান্সের

  স্পোর্টস রিপোর্টার ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিপিএলে এবার সম্ভাবনা জাগিয়েও সেঞ্চুরি করতে পারেননি সাব্বির রহমান, রাইলি রুশো, হজরতউল্লাহ জাজাই, মুশফিকুর রহিমরা। ৭০-৮০-র ঘরে গিয়ে যেন খেই হারিয়ে ফেলছেন তারা। ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্স, এভিন লুইস, ডেভিড ওয়ার্নারাও পারেননি তিন অঙ্ক ছুঁতে। বিপিএলে এবারের আসরে এমন একজন তিন অঙ্কের ঘরে প্রথম পৌঁছলেন, যিনি আলোচনায়ই ছিলেন না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখনও অভিষেক হয়নি। সেই ইংলিশ ক্রিকেটার লরি ইভান্স পেয়ে গেলেন এবারের বিপিএলে প্রথম সেঞ্চুরি। রাজশাহী কিংসের এই ব্যাটসম্যানের প্রথম পাঁচ ম্যাচে সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ১০! শূন্যতে আউট হয়েছেন দু’বার।

বাকি দুটিতে ১* ও ২। সোমবার ঢাকায় ফিরতি পর্বের প্রথমদিন সেঞ্চুরি করে রাজশাহীকে জয় উপহার দিয়েছেন তিনি। চতুর্থ উইকেটে রায়ান টেন ডেসকাটকে নিয়ে গড়েছেন অবিচ্ছিন্ন ১৪৮ রানের রেকর্ড জুটি।

প্রথমে ব্যাট করতে নামা রাজশাহী জয়ী হয় ৩৮ রানে। শুরুটা ভালো হয়নি। ২৮ রানে তারা তিন উইকেট হারায়। ধুকতে থাকা রাজশাহীকে আর উইকেট হারাতে দেননি ইভান্স ও ডেসকাট। তাদের ১৪৮ রানের জুটিতে মেহেদী হাসান মিরাজের দল পৌঁছে যায় তিন উইকেটেই ১৭৬ রানে। বিপিএলে আগের সর্বোচ্চ রানের জুটি ছিল ২০১৬ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে মারলন স্যামুয়েলস ও মাশরাফি মুর্তজার। ইভান্স এখনও জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পাননি। তবে সবশেষ ইংল্যান্ডের টি ২০ ব্লাস্টে সর্বোচ্চ রান করে সবার নজর কেড়েছেন। কাল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ওপেনিংয়ে নেমে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকা ইভান্স ৬২ বলে নয় চার ও ছয় ছক্কায় ১০৪ রান করেন। ডেসকাট ৫৯*।

ক্যারিয়ারের প্রথম টি ২০ সেঞ্চুরিকে বিশেষ কিছুই মনে করছেন ৩১ বছর বয়সী ইভান্স। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই এটা (সেঞ্চুরি) বিশেষ ইনিংস। এর আগেও একবার সেঞ্চুরির কাছে গিয়েছিলাম। আমি কোচ ও টিম ম্যানেজমেন্টের প্রতি কৃতজ্ঞ আমাকে সুযোগ দেয়ার জন্য। কারণ এর আগে আমি ভালো কিছু করতে পারিনি।’ অপর প্রান্তে ডেসকাট থাকায় ইভান্সের জন্য কাজটা সহজ হয়ে যায়। কাউন্টি লিগে খেলার সুবাদে দু’জন পরিচিত। ইভান্স বলেন, ‘আমি নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে পেরেছি। ডেসকাটের সঙ্গে ব্যাট করতে নেমে স্বচ্ছন্দ বোধ করেছি। প্রথমে চাপ ছিল। এরপর জয় পাওয়ার মতো স্কোর দাঁড় করানোর চেষ্টা করেছি।’

ইভান্স নামটা পরিচিত নয় বাংলাদেশে। খেলেছেন ডারহাম, সারে এবং ওয়ারউইকশায়ারের হয়ে কাউন্টি ক্রিকেটে। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেটে আফগান প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন। সদ্য বিয়ে করেছেন। ইভান্স বলেন, ‘উইকেট কঠিন ছিল। আগেরদিন অনুশীলনের সময় প্রথমবারের মতো আমার ভালো অনুভূতি হয়েছে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

রাজশাহী কিংস ১৭৬/৩, ২০ ওভারে

(লরি ইভান্স ১০৪*, রায়ান টেন

ডেসচাট ৫৯*। মেহেদী হাসান

১/৪, লিয়াম ডসন ২/২০)।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

১৩৮/১০, ১৮.২ ওভারে

(তামিম ইকবাল ২৫, এনামুল হক ২৬, শামসুর রহমান ১৫, জিয়াউর রহমান ১২, ইমরুল কায়েস ১৫, লিয়াম ডসন ১৭, শহীদ আফ্রিদি ১৯। কামরুল ইসলাম ৪/১০, কায়েস আহমেদ ২/৪৬)।

ফল : রাজশাহী কিংস ৩৮ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : লরি

ইভান্স (রাজশাহী)।

***

ঢাকা ডায়নামাইটস ১৩৯/৯, ২০ ওভারে (সুনীল নারাইন ১৯, হেইনো কুন ১৮, সাকিব আল হাসান ৩৪, নুরুল হাসান ২৭, শুভাগত হোম ২৯। রবি ফ্রাইলিঙ্ক ২/১৯, আবু জায়েদ ২/২৭, ক্যামেরন ডেলপোর্ট ৩/২৫)।

চিটাগং ভাইকিংস ১১৮/৬, ১৮ ওভারে (ক্যামেরন ডেলপোর্ট ৩০, ইয়াসির আলী ১৫, মুশফিকুর রহিম ২২, মোসাদ্দেক হোসেন ৩৩*। আন্দ্রে রাসেল ১/২৫, সাকিব আল হাসান ৪/১৬, রুবেল হোসেন ১/১৯)। (অসমাপ্ত)।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×