প্রহসনের শাস্তি!

প্রশ্ন উঠেছে, যে শাস্তি বহাল রাখা যায় না সেই শাস্তির দরকার কী?

  স্পোর্টস রিপোর্টার ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সাব্বির,

নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য বুধবার দল ঘোষণার ১৪ মিনিটের সংবাদ সম্মেলন জুড়েই থাকল সাব্বির রহমানের প্রসঙ্গটা। সাব্বির রহমানকে নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা শেষ না হওয়ার আগেই তার হঠাৎ জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে সাংবাদিকদের একের পর এক প্রশ্নে চরম বিরক্ত হয়ে গেলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন।

এক পর্যায়ে জানালেন, সাব্বির সম্পর্কিত কোনো প্রশ্নের আর উত্তর দেবেন না। শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে গত বছর সেপ্টেম্বরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সাব্বিরকে ছয় মাসের জন্য জাতীয় দলে নিষিদ্ধ করে বিসিবি। যার মেয়াদ শেষ হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি। কীভাবে তার শাস্তির মেয়াদ কমে গেল তা না জানিয়েই সাব্বিরকে রেখে দল ঘোষণা হল। প্রশ্ন উঠেছে, যে শাস্তি বহাল রাখা যায় না সেই শাস্তির দরকার কী?

শৃঙ্খলার ব্যাপারে বরাবরই নিজেদের কঠোর অবস্থানের কথা বলে বিসিবি। খেলোয়াড়দের অপরাধ বিবেচনায় বড় শাস্তিও দেয়া হয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটা রক্ষা করতে পারে না বোর্ড। সাব্বিরের ক্ষেত্রেও বিসিবি পারল না। এর আগে ২০১৪ সালে বাংলাদেশের ওই সময়ের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংয়ের সঙ্গে বাজে আচরণের কারণে সাকিব আল হাসানকে ছয় মাস সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করা হয়। সাকিব শাস্তি কমানোর আবেদন করলে সাড়ে তিন মাস পর তাকে মুক্ত করা হয়। এছাড়া বিপিএলে ফিক্সিংয়ের কারণে শাস্তি পাওয়া মোহাম্মদ আশরাফুলের শাস্তিও পরে কমে যায়।

নির্বাচকদের দাবি, দলের স্বার্থেই সাব্বিরের শাস্তি কমানো হয়েছে। বিশেষ করে ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের কথা ভেবেই তাকে দলে ফেরানো হয়েছে। নিষিদ্ধ হওয়ার পর ঘরোয়া ক্রিকেটে তেমন ভালো কিছু করতে পারেনি এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। বড় রান করতে পারেননি বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগেও (বিসিএল)। তবে এবারের বিপিএলে নিজের সপ্তম ম্যাচে ৫১ বলে ৮৫ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলেছেন। সাব্বিরের অনুপস্থিতিতে জাতীয় দলে যারা খেলেছেন তারাও আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি। তাই ওয়ানডেতে অধিনায়ক মাশরাফির বিশ্বাস ৬-৭ নম্বর পজিশনে সাব্বিরই বাংলাদেশের সেরা।

মঙ্গলবার মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের (রংপুর রাইডার্স) সঙ্গে সে যে ধরনের ক্রিকেট খেলেছে, প্রথমে যখন জাতীয় দলে নেয়া হয় তখনও আমরা দেখেছি এই ধরনের (দ্রুত রান তুলতে পারা) ক্রিকেট সে খেলতে পারে। তার কাছে আমাদের অনেক আশা। আশা করি সে নিয়মিত রান করতে পারবে।’

সাব্বিরকে ফেরানোর কারণ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে বিরক্ত হয়ে মিনহাজুল আবেদিন বলেন, ‘আপনারা একটা প্রশ্নই বারবার করছেন। টিম ম্যানেজমেন্ট যদি একজন খেলোয়াড়কে চায়, তার প্রতি যদি তাদের আস্থা থাকে নির্বাচক প্যানেল অবশ্যই সেটা গ্রহণ করতে পারে। কারণ এটা দলীয় প্রচেষ্টা। আমরা দেশের জন্য কাজ করছি। আমরা সেরা পারফরম্যান্স খেলোয়াড়দের কাছ থেকে চাই। তার সামর্থ্য আছে। সেটা কাজে লাগাতে পারলে সবারই ভালো।’

নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ ওয়ানডে দল

মাশরাফি মুর্তজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মো. মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মো. সাইফউদ্দিন ও নাঈম হাসান।

টেস্ট দল

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক, মো. মিঠুন, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ, সৈয়দ খালেদ আহমেদ ও নাঈম হাসান।

নিউজিল্যান্ড সফরসূচি

১৩ ফেব্রুয়ারি

প্রথম ওয়ানডে (নেপিয়ার)

১৬ ফেব্রুয়ারি

দ্বিতীয় ওয়ানডে (ক্রাইস্টচার্চ)

২০ ফেব্রুয়ারি

তৃতীয় ওয়ানডে (ডুনেডিন)

২৮ ফেব্রু.-৪ মার্চ

প্রথম টেস্ট (হ্যামিলটন)

৮-১২ মার্চ

দ্বিতীয় টেস্ট (ওয়েলিংটন)

১৬-২০ মার্চ

তৃতীয় টেস্ট (ক্রাইস্টচার্চ)

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×