বিশ্ব ক্রিকেট পরিবারের উদ্বেগ ও স্বস্তি

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতের ঘটনায় স্তম্ভিত গোটা বিশ্ব। বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের জন্য স্বস্তির খবর, আল নূর মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে দেরিতে যাওয়ায় প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। লাল-সবুজের ক্রিকেট এক বিরাট বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেয়েছে। বন্দুকধারী সন্ত্রাসীর নারকীয় ও কাপুরুষোচিত হামলা থেকে রক্ষা পাওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের প্রতিক্রিয়া এখানে। তাদের সঙ্গে সারা বিশ্বের ক্রিকেটাররা কণ্ঠ মিলিয়েছেন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে। স্বস্তি বোধ করেছেন বাংলাদেশ দলের সবাই নিরাপদে থাকায়-

‘সক্রিয় বন্দুকধারীর গুলি থেকে বেঁচে গেছে গোটা দল। ভীতিকর অভিজ্ঞতা। আমাদের জন্য প্রার্থনা করুন’

- তামিম ইকবাল

‘আল হামদুলিল্লাহ, ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে গুলি থেকে আল্লাহ আমাদের বাঁচিয়েছেন আজ... আমরা ভীষণ ভাগ্যবান। সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ। আর কখনও

এমন কিছু দেখতে চাই না। আমাদের জন্য দোয়া করুন’

- মুশফিকুর রহিম

‘বন্দুকধারীদের গুলি থেকে বেঁচে

গিয়েছি। সবাই ভীষণ ভীতিকর পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে’

- বাংলাদেশ দলের পারফরম্যান্স ও স্ট্র্যাটেজিক অ্যানালিস্ট শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখর

‘যে কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড দুঃখজনক। ব্যাপারটা আরও শোচনীয় হয় যখন সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালানো হয় কিছু নিষ্পাপ প্রার্থনারত মানুষের ওপর। দুর্ঘটনায় নিহত সব বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি। কাপুরুষোচিত এই ঘটনায় স্বজন হারানো শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি জানাচ্ছি সমবেদনা। মহান আল্লাহকে ধন্যবাদ আমাদের দলের সব ক্রিকেটারকে হামলা থেকে নিরাপদে রাখার জন্য। যত দ্রুত সম্ভব যেন তারা দেশে ফেরে সেই কামনাই করি’

- সাকিব আল হাসান

‘আল্লাহ সব কিছুর মালিক। ওই মসজিদে আমিও নামাজ পড়ে এসেছি। এটা একটি পরিকল্পিত হামলা। মহান আল্লাহর কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া যে, আমাদের ক্রিকেটারদের রক্ষা করেছেন এত বড় একটা দুর্ঘটনা থেকে। যেসব মুসলমান ভাইয়েরা মারা গেছেন আল্লাহ তাদের জান্নাত নসিব করুন’

- রুবেল হোসেন

‘ভীষণ অপ্রত্যাশিত ও বিয়োগান্তক ঘটনা। ক্রাইস্টচার্চের এই নৃশংস ও কাপুরুষোচিত ঘটনায় যারা হতাহত হয়েছে, সবার প্রতি আমার অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে গভীর সমবেদনা। আমার ভাবনাজুড়ে রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তারা ভালো ও নিরাপদে থাকুক’

- ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি

‘ভয়াবহ দুর্ঘটনা ক্রাইস্টচার্চে। আমি সব সময়ই নিউজিল্যান্ডকে শান্তিপূর্ণ একটি দেশ হিসেবে দেখেছি। যেখানে সবাই খুবই বন্ধুভাবাপন্ন। আমি তামিমের সঙ্গে কথা বলেছি। বাংলাদেশের খেলোয়াড় ও স্টাফরা নিরাপদে আছে, এটাই বড় পরিত্রাণ। এসব বিষয়ে সারা বিশ্বের একজোট হওয়া উচিত...আল্লাহ সহায় হোন’

- সাবেক পাকিস্তান অধিনায়ক

শহীদ আফ্রিদি

‘ক্রাইস্টচার্চে গোলাগুলির ঘটনায় আমি স্তব্ধ। যারা প্রিয়জনদের হারিয়েছেন তাদের প্রতি শোক ও সমবেদনা। যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাদের জন্য ভালোবাসা ও প্রার্থনা। আহতরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন এই কামনা’

- শ্রীলংকার ব্যাটিং গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা

‘ক্রাইস্টচার্চের মসিজদে হামলার খবর শুনে আমি স্তম্ভিত। মানবতা এখানে হারিয়ে গেছে...। আল্লাহকে ধন্যবাদ যে, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে রক্ষা করেছেন’

- পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ

‘নিউজিল্যান্ডে যখন আপনাকে সরাসরি গুলি থেকে বাঁচতে হয় তখন বুঝে নেবেন পৃথিবী মোটেও ভালো জায়গা নয়। বাংলাদেশ দল নিরাপদে আছে জেনে স্বস্তি বোধ করছি’

- ভারতীয় ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে

‘নিউজিল্যান্ডে হত্যাকাণ্ডের খবর শুনে স্তব্ধ হয়ে পড়েছি। হতাহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিরাপদে আছে জেনে স্বস্তি পাচ্ছি’

- শ্রীলংকার অলরাউন্ডার

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস

‘নানা ঘটনা দূর থেকে দেখে এতদিন ভেবেছি, বিশ্বের এই কোণে আমরা একটু আলাদা, একটু নিরাপদ। ভয়াবহ এই দিনে ভীতিকর ও দুঃখজনক ঘটনাটির পর সেই বিশ্বাস টলে গেল’

- নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার

জিমি নিশাম

‘ক্রাইস্টচার্চে মসজিদের মধ্যে হামলার ঘটনা দেখে আমি স্তব্ধ। এই সময়ে এসে আমরা প্রার্থনার জায়গাগুলোতেও কী তবে নিরাপদ নই?’

- পাকিস্তানের সাবেক পেসার

শোয়েব আখতার

‘মানবতার জন্য পৃথিবীর কোনো জায়গাই এখন আর নিরাপদ নয়। কারণ মানুষই এই গ্রহের সবচেয়ে বড় শত্রু’

- ভারতের স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন

আরও পড়ুন
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×