শরণার্থী শিবির থেকে বিশ্বমঞ্চে

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৯ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তাজ,

আশির দশকে আফগানিস্তানে ক্রিকেটের কোনো স্থান ছিল না। লাখ লাখ আফগান দেশ ছেড়ে শরণার্থী হিসেবে পাকিস্তানে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। সে সময় উদ্বাস্তু শিবিরে ১৩ বছরের তাজ মালিকের প্রথম পরিচয় হয় ক্রিকেটের সঙ্গে। প্লাস্টিকের ব্যাগ দিয়ে বল এবং লাঠিকে ব্যাট বানিয়ে ভাইদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলতে শুরু করে সে। পরে টেনিস বল দিয়ে খেলার সুযোগ হয়।

উদ্বাস্তু শিবিরে আফগান ক্রিকেট ক্লাবের গোড়াপত্তন করে তাজ। শরণার্থী শিশুরা সঙ্গী হয় তার। নব্বইয়ের দশকের শুরুতে আফগানিস্তানে কট্টরপন্থী তালেবানরা ক্ষমতায় এসে খেলাধুলা নিষিদ্ধ করে। ক্রিকেট তাদের দু’চোখের বিষ। ১৯৯৫-তে আফগান ক্রিকেট ফেডারেশন (এসিএফ) গঠন করেন ক্রিকেটার আল্লাহ দাদ নুরি। এদিকে পাকিস্তানে শরণার্থী জীবনের দুর্বিষহ অবস্থায়ও আফগান ক্রিকেট ক্লাব পেশোয়ার লিগে খেলতে শুরু করে। বেশ কয়েকটি স্থানীয় শক্তিশালী দল হার মানে তাদের কাছে।

এসিএফ প্রতিষ্ঠার ছয় বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) আফগানিস্তানকে অ্যাফিলিয়েট দলের মর্যাদা দেয়। তাজ তখন আফগান ক্রিকেট দলের কোচ। অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে সাবেক শরণার্থীদের আফগান দল ২০১০ টি ২০ বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব জেতে। ক্রিকেট-রাজনীতি এবং সহযোগী সদস্য দেশগুলোর জন্য আইসিসির অপর্যাপ্ত তহবিল সরবরাহ সত্ত্বেও আফগানিস্তান তিনটি টি ২০ এবং দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। শুধু তাই নয়, ২০১৬ টি ২০ বিশ্বকাপে তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারায়।

ক্যারিবীয়রা পরে ওই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়। ততদিনে টেস্ট খেলুড়ে দেশ জিম্বাবুয়েকে হারানো তারা ডাল-ভাতে পরিণত করেছে। ২০১৫ বিশ্বকাপে খেলে দেশে ফেরার পর বন্দুকের গুলি ছোড়া হয়। এবার অবশ্য শূন্যে আনন্দ প্রকাশের জন্য। ২০১৭ সালে আইসিসি আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে আফগানিস্তানকেও টেস্ট পরিবারের সদস্য হিসেবে গ্রহণ করে। গেল বছর মার্চে জিম্বাবুয়েতে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের বৈতরণী পার করে আফগানিস্তান। তার মানে, ২০১৯ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের দশ দলের অন্যতম হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে তারা। রক্তপাত, সহিংসতা যেন নিয়তি দেশটির।

কিন্তু ক্রিকেটের এমনই শক্তি যে, এই খেলাটি গোটা জাতিকে একই ছাতার নিচে নিয়ে আসে।

রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবীর মতো ক্রিকেটাররা এখন বিশ্বময় মহাতারকা। বিপিএল, আইপিএল ও অন্যান্য টি ২০ আসরে খেলার জন্য সারা বিশ্ব চষে বেড়ান তারা। পেশোয়ারের শরণার্থী শিবিরে সৌখিন আফগান ক্রিকেটাররা স্বপ্নের যে বীজ রোপণ করেছিলেন, আজ তা রূপ নিয়েছে মহীরুহে।

টেস্টে প্রথম জয়

দল ম্যাচ

অস্ট্রেলিয়া ১

ইংল্যান্ড ২

পাকিস্তান ২

আফগানিস্তান ২

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৬

জিম্বাবুয়ে ১১

দক্ষিণ আফ্রিকা ১২

শ্রীলংকা ১৪

ভারত ২৫

বাংলাদেশ ৩৫

নিউজিল্যান্ড ৪৫

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×