মহারণের জন্য প্রস্তুত মারিয়ারা

প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  স্পোর্টস রিপোর্টার

আজ বাদে কাল শুরু বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা। অংশগ্রহণকারী দলগুলো এরই মধ্যে এসে পড়েছে ঢাকায়। গতকাল অনুশীলনও করেছে দলগুলো। ঘরের মাঠে মারিয়াদের জন্য নিঃসন্দেহে বড় আসর। তাই তো প্রস্তুতিতে কোনো খামতি রাখেননি কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। তাই একদিন আগেই শনিবার অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দল ঘোষণা করেন তিনি। সাফের স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন শুধু সিনিয়র ফুটবলার সাবিনা খাতুন। সাফের স্কোয়াড ছিল ২০ জনের। এই টুর্নামেন্টের স্কোয়াড ২৩ জনের। চার জন অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে নতুন অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন।

এই দল নিয়েই শিরোপা জিততে চান কোচ ছোটন। তার কথায়, ‘আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য নিয়েই এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছি।’ বি-গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আরব আমিরাত ও কিরগিজস্তান। বাংলাদেশের প্রাথমিক লক্ষ্য গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া। ছোটন বলেন, ‘টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আগে আমাদের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে হবে। তাহলে আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়বে।’ অংশ নেয়া দলগুলো বাংলাদেশের চেয়ে শক্তিতে খুব বেশি এগিয়ে নেই। তাই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশেই হট ফেভারিট।

এ প্রসঙ্গে কোচের বক্তব্য, ‘নারী ফুটবলে এখন সব দলই ভালো করছে। কোনো দলকে খাটো করে দেখার সুযোগ নেই। ৯০ মিনিটের ম্যাচে যে কোনো কিছু ঘটতে পারে।’ অনূর্ধ্ব-১৮ পর্যায়ের টুর্নামেন্টে অধিনায়ক থাকেন মিডফিল্ডার মিসরাত জাহান মৌসুমী। তাই মিসরাত জাহানকেই অনূর্ধ্ব-১৯ এর অধিনায়ক করা হয়েছে। অধিনায়কের কথা, ‘সাফ অনূর্ধ্ব-১৮তে আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। দক্ষিণ এশিয়া পর্যায়ে আমরা সেরা। এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬তে সেরা আট দেশের একটি আমরা। অনূর্ধ্ব-১৯ এ দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে আমাদের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করতে চাই।’ আজ দুপুরে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে অংশগ্রহণকারী সব দলের অধিনায়ক কোচ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন ও ট্রফি উন্মোচন করা হবে।

এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য- প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে ট্রফি নেয়া। বাফুফে কর্মকর্তাদের প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন হওয়া। আগামী নির্বাচনের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে সবাইকে তুষ্ট করতে চাইছে বাফুফে। তাই এ টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দলের দলনেতা করা হয়েছে সাবেক ফুটবলার ও কাউন্সিলর ইলিয়াস হোসেনকে। বাগেরহাটের জাকির হোসেন চৌধুরীকে উপদলনেতা বানানো হয়েছে। জাকির হোসেন চৌধুরী জাতীয় নারী দলের দলনেতা হলেও অনূর্ধ্ব-১৯ দলে এই পদ পেয়েছেন। মূলত ইলিয়াস হোসেনকে নিজেদের দলে রাখতে এই কৌশল। ম্যানেজার হিসেবে বহাল তবিয়তে রয়েছেন আমিরুল ইসলাম বাবু।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবল দল

রুপনা চাকমা, মাহমুদা আক্তার, মাসুরা পারভিন, নার্গিস খাতুন, আঁখি খাতুন, শিউলি আজিম, মিসরাত জাহান মৌসুমী, শামসুন্নাহার, নিলুফার নিলা, নাজমা আক্তার, মারিয়া মান্ডা, মনিকা চাকমা, রত্না, মার্জিয়া, রাজিয়া খাতুন, সানজিদা আক্তার, সিরাত জাহান স্বপ্না, কৃষ্ণা রানী সরকার, শামসুন্নাহার, সাজেদা খাতুন, তহুরা খাতুন ও মোসাম্মাৎ সুলতানা।