এত সুযোগ এত মিস

মৌসুমী-স্বপ্নারা স্বার্থপর?

  স্পোর্টস রিপোর্টার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বল পজেশনে এগিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা (৭২ শতাংশ)। তারপরও স্কোরলাইন ২-০। আরব আমিরাতের বিপক্ষে ম্যাচে এ জন্য দুর্বল ফিনিশিংকে দায়ী করেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক মিসরাত জাহান মৌসুমী। বলছেন, ‘গোলের সুযোগ আমরাই বেশি তৈরি করেছি। কিন্তু কাজে লাগাতে পারিনি। তা না হলে ব্যবধান আরও বড় হতে পারত। আমাদের ভুল ছিল। সাতটার বেশি গোল মিস করেছি। আমরা দুঃখিত। তবে চেষ্টা করেছি গতবারের চেয়ে আরও বড় ব্যবধানে জিততে। কিন্তু হয়নি। ফিনিশিংয়ে দুর্বলতা আমাদের লক্ষ্য পূরণ করতে দেয়নি।’ অধিনায়কের কথা, ‘স্বার্থপর ফুটবল কেউ খেলেনি। সবাই ওয়াদা করে মাঠে নামি, ব্যক্তির চেয়ে দেশ আগে। তবে হয়তো সুযোগ ছিল বলেই নিজেরা চেষ্টা করেছে। এমনটা নয় যে তারা স্বার্থপরের মতো খেলেছে। সতীর্থদের সব সময় বলি, আগে আমরা দলের জন্য গোল দেব। যদি স্কোরলাইন ভালো হয়, তবে তুমি সুযোগ নিতে পার।’

অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে এই প্রথম আমিরাতের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। এর আগে অনূর্ধ্ব-১৬তে তিনটি ম্যাচ খেলেছে। সেই দলের খেলোয়াড়রা খেলছেন অনূর্ধ্ব-১৯-এ। অনূর্ধ্ব-১৬ পর্যায়ে তিন ম্যাচে আমিরাতকে ১৭ গোল দিয়েছিল বাংলাদেশ। সোমবার বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে বাংলাদেশ দলের প্রথম গোল করেন ফরোয়ার্ড সিরাত জাহান স্বপ্না। গোটাতিনেক মিস করা স্বপ্নার কথা, ‘চেষ্টা করেছি, সুযোগও তৈরি করেছি। মিস হয়েছে। চেষ্টা করব আগামী ম্যাচগুলোতে এমন ভুল যেন না হয়।’ এই ফরোয়ার্ড বলেন, ‘এত গোল মিস করেছি। খারাপ তো লাগবেই। অভিযোগ উঠেছে আমরা সেলফিশ গেম খেলেছি। এই অভিযোগ ঠিক নয়। চেষ্টা করেছি, সুযোগ তৈরি করেছি; কিন্তু গোল হয়নি।’

টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার লক্ষ্য সম্পর্কে স্বপ্না বলেন, ‘এ নিয়ে কথা বলতে চাই না। নিজে গোল করার চেয়ে ম্যাচ জিতলেই বেশি খুশি হই। দলকে জেতানোই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। সর্বোচ্চ গোলদাতা কে হবে, এই চিন্তা করি না। যার পা থেকে গোল হয় হোক, আমাদের গোলের সংখ্যা বাড়ুক, আমরা যেন জিতি।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×