লিভারপুলের ‘সেরা রাত’

  ওয়েবসাইট ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কোচ হিসেবে টানা ছয়টি ফাইনালে হারের তিক্ত অভিজ্ঞতা ছিল সঙ্গী। সপ্তমবারে এসে ছুটল গেঁরো। টটেনহ্যাম হটস্পারকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের পর তাই লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ বললেন, এটাই তাদের সেরা রাত। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মাঠ ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোতে শনিবার রাতে টটেনহ্যামকে ২-০ গোলে হারিয়ে ১৪ বছর পর ইউরোপ-সেরা মুকুট জয়ের উৎসবে মাতে লিভারপুল।

২০০৪-০৫ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের পঞ্চম শিরোপা জিতেছিল লিভারপুল। গত মৌসুমেও ইউরোপ-সেরার আসরে ফাইনাল খেলেছিল দলটি। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে ভেঙেছিল স্বপ্ন। স্বপ্নপূরণের ম্যাচে দ্বিতীয় মিনিটেই নিখুঁত এক স্পট কিকে লিভারপুলকে এগিয়ে নেন মিসরের তারকা ফরোয়ার্ড মোহামেদ সালাহ। বদলি নামা বেলজিয়ামের ফরোয়ার্ড দিভোক ওরিগির শেষ দিকের গোলে লিভারপুলের ষষ্ঠবারের মতো ইউরোপ-সেরার শিরোপা জয় নিশ্চিত হয়ে যায়।

ম্যাচ শেষের প্রতিক্রিয়ায় বিটি স্পোর্টকে নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে দলের মানসিকতার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হন ক্লপ। আলাদাভাবে প্রশংসা করেন দারুণ কিছু সেভ করা গোলরক্ষক আলিসনকেও।

‘ছেলেদের নিয়ে আমি ভীষণ খুশি। পরিবারকে নিয়েও, তারা আমার জন্য ভুগেছে, যে কারও চেয়ে এটা তাদের বেশি প্রাপ্য। আপনি কি কখনও এমন দল দেখেছেন? ট্যাংকে জ্বালানি নেই কিন্তু লড়ে যাচ্ছে? এবং আমাদের একজন গোলরক্ষক আছে, যে কঠিন কাজটা করছে সহজভাবে। এটাই আমাদের পেশাদার ক্যারিয়ারের সেরা রাত।’

সালাহর প্রেরণা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গত আসরে কিয়েভের ফাইনালের বেদনা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে এবারের ফাইনালে নেমেছিলেন বলে জানিয়েছেন লিভারপুলের জয়ের অন্যতম নায়ক মোহামেদ সালাহ। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মাঠে শনিবার রাতে টটেনহ্যামকে ২-০ গোলে হারিয়ে ১৪ বছর পর ইউরোপসেরা মুকুট জয়ের উৎসবে মাতে লিভারপুল। দ্বিতীয় মিনিটে সফল স্পট কিকে লিভারপুলকে এগিয়ে নেন সালাহ। শেষ দিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দিভোগ ওরিগি।

১২ মাস আগে কিয়েভে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ফাইনালে পুরোটা খেলতে পারেননি সালাহ। সের্গিও রামোসের ট্যাকলে চোট পেয়ে ৩০ মিনিটের মাথায় কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়েন। কান্নার একটি ছবি থেকেই এবার অনুপ্রেরণা নেয়ার কথা জানান মিসরের এই ফরোয়ার্ড, ‘ম্যাচের আগে গত বছরের ছবিটা দেখেছিলাম।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×