দুরন্ত ইংল্যান্ডের সামনে নড়বড়ে পাকিস্তান

ট্রেন্ট ব্রিজে আজই ৫০০?

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ওয়ানডেতে একসময় তিনশ’ ছাড়ানো সংগ্রহই ক্রিকেটপ্রেমীদের চোখ কপালে তুলে দিত। টি ২০’র আবির্ভাবের পর সেটা চোখ সওয়া হয়ে গেছে। একদিবসী ক্রিকেটে ৪০০ রানও এখন বিরল নয়। এমনকি ৫০০ রানের মতো অবিশ্বাস্য কিছুও এবারের বিশ্বকাপে দেখা যেতে পারে বলে ধারণা অনেকের। যদিও যাবতীয় পূর্বানুমান ভুল প্রমাণ করে এখন পর্যন্ত বোলাররাই ছড়ি ঘোরাচ্ছেন বিশ্বকাপে। তারপরও ৫০০ সংক্রান্ত আলোচনা আবারও সবার মুখে মুখে। কারণ ওয়ানডে ইতিহাসের সবচেয়ে রানপ্রসবা পিচে সময়ের সবচেয়ে বিধ্বংসী ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে আজ নামছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে আজ বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি ইংল্যান্ড ও পাকিস্তান। এই ট্রেন্ট ব্রিজেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে মাত্র ১০৫ রানে অলআউট হয়ে সাত উইকেটে হেরেছে পাকিস্তান। অন্যদিকে দ্য ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১০৪ রানে হারিয়ে হট ফেভারিটের মতোই বিশ্বকাপ শুরু করেছে ইংল্যান্ড। নড়বড়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ তারা পরিষ্কার ফেভারিট।

উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের আগে পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ বলেছিলেন, তাদের দল ‘অননুমেয়’ বলেই সবাই ভয় পায়। কিন্তু প্রশ্ন হল, টানা ১১টি ওয়ানডে হারা কোনো দলকে কী অননুমেয় বলা যায়? নিজেদের অনিশ্চিত চরিত্রকে ঢাল বানিয়ে ইংল্যান্ডকে অন্তত ভয় দেখাতে পারবে না পাকিস্তান। বিশ্বকাপের ঠিক আগে ইংল্যান্ডের কাছে ৪-০তে সিরিজ হেরেছে তারা। সেই সিরিজে রানের সুনামি বইলেও বিশ্বকাপে পা রাখতেই পাকিস্তানি ব্যাটিংয়ের কঙ্কাল বেরিয়ে এসেছে। বিশ্বকাপের শুরুটা সরফরাজের মুখে তেতো স্বাদ এনে দিয়েছে। উইন্ডিজের পেস আক্রমণের সামনে যেভাবে আত্মসমর্পণ করেছে তারা, তাতে ইংলিশদের পেস কীভাবে সামলাবে পাকিস্তান এ নিয়ে শঙ্কিত সাবেকরা। উইন্ডিজের দেখানো পথেই গতিময় বাউন্সারে পাকিস্তানকে ধসিয়ে দিতে চাইবে ইংল্যান্ড। শর্ট বলে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতা নতুন নয়। আর ইংল্যান্ডের হাতেও আছে ক্যারিবীয় অস্ত্র। বারবাডোজে জন্ম নেয়া ইংলিশ পেসার জফরা আর্চার উদ্বোধনী ম্যাচে গতির ঝড়ে নাড়িয়ে দিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকাকে। আজ নতুন বলে তার সঙ্গী হতে পারেন আরেক গতিময় পেসার মার্ক উড।

আর্চার ও উডকে সামলানো নিঃসন্দেহে কঠিন চ্যালেঞ্জ। কিন্তু তার চেয়েও কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে পাকিস্তানের বোলারদের সামনে। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের একমাত্র প্রাপ্তি ছিল বিশ্বকাপ অভিষেকে মোহাম্মদ আমিরের তিন উইকেট। বাকি বোলাররা বেদম মার খেয়েছেন। বোলারদের তুলোধুনো করার কাজটিকে ইদানীং শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে গেছেন ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। আমির, ওয়াহাবদের আসল ভয়টা অবশ্য অন্য জায়গায়। আজ ট্রেন্ট ব্রিজের যে পিচে খেলা হবে, সেখানে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহের বিশ্বরেকর্ড দু’বার

ভেঙেছে ইংল্যান্ড! ২০১৬ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষেই তিন উইকেটে ৪৪৪ রানের রেকর্ড গড়ে তারা। গত বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেই রেকর্ড ভেঙে ছয় উইকেটে ৪৮১ রান তুলেছিল ইংল্যান্ড। সেই ২২ গজে আজ কী তবে প্রথম ৫০০ দেখবে একদিবসী ক্রিকেট? সম্ভাবনাটা উড়িয়ে দিচ্ছেন না ইংল্যান্ডের ব্যাটিং কোচ গ্রাহাম থর্প, ‘ব্যাটিংয়ের জন্য ট্রেন্ট ব্রিজের উইকেট সাধারণত সব সময়ই সহায়ক হয়। ছেলেরা তাই দারুণ রোমাঞ্চিত। সুযোগ এলে চেষ্টা (৫০০ রান করার) অবশ্যই থাকবে। যত বেশি সম্ভব রান তুলতে চাইব আমরা। সেটা না হলে স্কোর বোর্ডে অন্তত সেই রানটা তুলতে হবে যাতে প্রতিপক্ষ চাপে থাকে।’

হেড-টু-হেড

ম্যাচ ইংল্যান্ড জয়ী পাকিস্তান জয়ী পরিত্যক্ত

৮৭ ৫৩ ৩১ ৩

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×