‘কথা দিয়ে না রাখাই বাফুফের কাজ’

  স্পোর্টস রিপোর্টার ২১ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ নারী ফুটবলের ফাইনালে ঠাকুরগাঁওয়ের না খেলতে পারাকে দুঃখজনক ও লজ্জাজনক আখ্যা দিয়ে এ জন্য বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে (বাফুফে) দায়ী করেছেন তরফদার রুহুল আমিন। শনিবার মহাখালীর কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে সময় বাংলাদেশ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের এই মহাসচিব বলেন, ‘জেএফএ কাপের সেমিফাইনালে খেলে জিতেছে ঠাকুরগাঁও। তখন কি তাদের চোখে পড়েনি বিষয়টি। আসলে বাফুফের অপেশাদারিত্ব ফের প্রকট হয়েছে। কোনো খেলোয়াড় একই টুর্নামেন্টে দু’বারের বেশি খেলতে পারবে না। এটি বাফুফের আগে থেকেই নজরে আনা উচিত ছিল। দ্বিতীয়ত, ময়মনসিংহের আবেদনের পর যাচাই-বাছাই করে ঠাকুরগাঁওকে আগেই অবহিত করা উচিত ছিল যে, তারা অযোগ্য। একটি দল মাঠে আসার পর তাদের ফাইনালে খেলার অযোগ্য ঘোষণা করা, একই সঙ্গে দুঃখজনক ও লজ্জার। এছাড়া এটি মেয়েদের ফুটবল। কোমলমতী মেয়েদের মনে আঘাত দিয়ে দেশের মহিলা ফুটবল অঙ্গনে একটি কালো দাগ একে দিল বাফুফে।’

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে (বিপিএল) অংশগ্রহণ মানি ছিল ৩০ লাখ টাকা। কিন্তু দেয়া হচ্ছে ২০ লাখ টাকা করে। এ বিষয়ে তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘২০১৫-১৬ মৌসুমে সাইফ পাওয়ারটেক চার কোটি টাকায় বিপিএলের টাইটেল স্পন্সর ছিল। ক্লাবগুলোকে ইতিহাসে নজিরবিহীন ৪০ লাখ টাকা অংশগ্রহণমূলক অর্থ দেয়া হয়েছিল। আমরা শুনেছি বর্তমান স্পন্সরের কাছে বিপিএলসহ অন্য ফুটবল লিগগুলোকেও বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। ফুটবলের মান ও ভাবমূর্তি বাফুফে কোথায় নিয়ে ঠেকিয়েছে তা দিবালোকের মতো পরিষ্কার। প্রায় এক বছর ধরে ফুটবল মৌসুম চালিয়েছে বাফুফে। দেশের ৬টি ভেন্যুতে খেলিয়ে ক্লাবগুলোকে ২০ লাখ টাকা অংশগ্রহণ মানি দিচ্ছে। এবং সেই প্রতিশ্রুত অর্থ দেয়ার তারিখ ঘোষণা করেও ক্লাবগুলোর হাতে চেক তুলে দেয়নি। আসলে কথা দিয়ে না রাখাই বাফুফের কাজ।’

বাফুফের ২০২০ সালের অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন সম্পর্কে তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ ফুটবল ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের মনোনীত হিসেবে বাফুফের সভাপতি পদে নির্বাচন করতে চাই, যা ইতিমধ্যেই ঘোষিত হয়েছে। আমি যখন ফুটবল উন্নয়নে কাজ করতে শুরু করলাম, তখন থেকেই বাফুফের আক্রোশের শিকার। বিনা কারণে বিনা নোটিশে সাইফ পাওয়ারটেকের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি এক বছর পরই বাতিল করে দেয় বাফুফে। আমি আইনি লড়াইয়ে যেতে পারতাম। কিন্তু দেশের ফুটবলের কথা চিন্তা করেই তা করিনি।’

বিশ্বকাপ ফুটবলে বাংলাদেশের গ্রুপিং নিয়ে তরফদার বলেন, ‘অপেক্ষাকৃত সহজ গ্রুপেই পড়েছে বাংলাদেশ। গ্রুপের তিন নম্বর স্থানটা অর্জন করা অসম্ভব নয়। কিন্তু বাফুফে সঠিক পরিকল্পনা ও কর্মকৌশল প্রণয়ন করে তা করতে পারবে কি না সে ব্যাপারে আমি সন্দিহান। লিগ শেষের দিকে। কিন্তু প্রধান কোচ ব্রিটিশ জেমি ডে’র ঢাকায় আসার খবর নেই।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×