জেমির দল নিয়ে প্রশ্ন দুই সাবেক গোলকিপারের

প্রকাশ : ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  স্পোর্টস রিপোর্টার

২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে আটটি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ১০ সেপ্টেম্বর থেকে আগামী বছরের ৯ জুন পর্যন্ত চলবে বাছাইপর্ব। বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, কাতার, ওমান ও ভারত- পাঁচটি দল প্রত্যেকের সঙ্গে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে গ্রুপপর্বে খেলবে একে অপরের বিপক্ষে।

১০ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বাংলদেশের বাছাইপর্ব। ইতিমধ্যে ২৫ সদস্যের জাতীয় ফুটবল দল ঘোষণা করা হয়েছে। আজ ঢাকায় ফিরেছেন কোচ জেমি ডে। এদিকে ব্রিটিশ কোচের প্রাথমিক দল নিয়ে সমালোচনা ও বিতর্ক রয়েছে।

তারুণ্যকে প্রাধান্য দিলেও পরীক্ষিত একাধিক তরুণ ফুটবলার বাদ পড়েছেন। ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বেশিরভাগ খেলা না দেখলেও কোচ ইংল্যান্ডে বসে যে তালিকা তৈরি করে পাঠিয়েছেন, সেটি নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। প্রাথমিক দলে এমন সব ফুটবলারকে জায়গা দিয়েছেন, যারা নিকট অতীতে উল্লেখযোগ্য পারফরমেন্স দেখাতে পারেননি। জেমি সর্বশেষ লাওসের বিপক্ষে ম্যাচের জন্য যে ২৩ ফুটবলারকে দলে নিয়েছিলেন সেখান থেকে মাত্র চারজনকে বাদ দিয়েছেন আফগানিস্তান ম্যাচের প্রাথমিক দলে।

সাম্প্রতিক সময়ে গোলকিপার শহিদুল আলম সোহেলের হাস্যকর ভুলে ভুগতে হয়েছে বাংলাদেশকে। প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা থেকে বঞ্চিত হয়েছে ঢাকা আবাহনী। ফুটবল সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, সোহেলকে সুযোগ দিতে গিয়ে ছেঁটে ফেলা হয়েছে পরীক্ষিত গোলকিপার মাজহারুল ইসলাম হিমেলকে।

প্রাথমিক দলে জায়গা পাননি লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসের মিডফিল্ডার ইমন মাহমুদ বাবু। গেল মৌসুমের প্রায় পুরোটা সময় ভালো খেলেছেন আবাহনীর ডিফেন্ডার রায়হান হাসান, বসুন্ধরা কিংসের ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন চৌধুরী ও মোহামেডানের স্ট্রাইকার তকলিচ আহমেদ। প্রাথমিক দলে তাদের বিবেচনায় নেননি কোচ। এ বিষয়ে জেমি ডে’র ব্যাখ্যা, ‘নাসির প্রিমিয়ার লিগের শেষদিকে কিছু ম্যাচ খেলেনি। তার বয়স হয়েছে। এখন আমাদের প্রয়োজন ভবিষ্যতের জন্য তরুণ খেলোয়াড়। আর রায়হান ও তকলিচ সম্পর্কে বলতে পারি, আমি মনে করি না যে, যাদের নেয়া হয়েছে তাদের চেয়ে এই দু’জন ভালো।’

প্রাথমিক দল নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সাবেক ফুটবলাররা। জাতীয় দলের সাবেক গোলকিপার আমিনুল হক বলেন, ‘বসুন্ধরা কিংসের মিডফিল্ডার ইমন বাবু বাদ কেন পড়েছে বুঝলাম না। গোলকিপার হিমেলও ভালো। যদি সেরা দল গঠন করে থাকেন জেমি, তাহলে ভালো। আফগানিস্তান আমাদের প্রায় সমমানের দল।

ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ফুটবলের মধ্যে অনেক পার্থক্য। চাপ তরুণরা কীভাবে নেবে তাই দেখার বিষয়।’ জাতীয় দলের আরেক সাবেক গোলকিপার বিপ্লব ভট্টাচার্য বলেন, ‘যাদের পারফরম্যান্স ভালো তাদেরই দলে রেখেছেন জেমি। তরুণ দল গড়েছেন। অনেকে ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছে। ভালো দল হয়েছে। তবে মিডফিল্ডার ইমন বাবু ও ফরোয়ার্ড তকলিচকে ডাকা উচিত ছিল। ইমন বাবু পরীক্ষিত মিডফিল্ডার। তকলিচও ভালো। আমাদের আটটি ম্যাচ খেলতে হবে। দীর্ঘ সময় খেলতে হলে এদেরও প্রয়োজন।’