‘বিজয়ের মাসে কলঙ্কিত ফুটবল’

দশ বছরের ব্যর্থতার পরও তারা ফের চেয়ারে বসার জন্য তোড়জোড় শুরু করেছেন

  স্পোর্টস রিপোর্টার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

‘বিজয়ের মাসে দক্ষিণ এশিয়ায় শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছে লাল-সবুজের ফুটবল দল। এটা আমাদের জন্য লজ্জার। ফুটবল দলের এই ব্যর্থতার জন্য বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের জাতির কাছে করজোড়ে ক্ষমা চাওয়া উচিত’, শনিবার মিডিয়ার সঙ্গে এক মতবিনিময়কালে এমন মন্তব্য করেন জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (বিডিডিএফএ) মহাসচিব তরফদার মো. রুহুল আমিন। এ সময় বিডিডিএফএ’র সদস্য আশিকুর রহমান মিকু ও নরসিংদী জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন সাধারণ সম্পাদক সংগঠক শাহীনুল ইসলাম ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।

নেপালের কাঠমান্ডু ও পোখারাতে সদ্যসমাপ্ত সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে ১৯ স্বর্ণপদক পেলেও ফুটবলে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। কারণ এসএ গেমসে ফুটবল ও ১০০ মিটার স্প্রিন্টের স্বর্ণপদকই হল শ্রেষ্ঠত্বের প্রতীক। এসএ গেমসে বাংলাদেশ ফুটবল দল ফেভারিট হিসেবেই গিয়েছিল। কারণ সাত দেশের গেমসে ফুটবল ডিসিপ্লিনে ছিল না অন্যতম শক্তিশালী দল ভারত ও পাকিস্তান। কিন্তু তারপরও হার দিয়ে শুরু এবং হার দিয়েই নিজেদের যাত্রা শেষ করেছে জামাল ভূঁইয়ারা। গেমসের শুরুতেই ভুটানের কাছে ১-০ গোলে হেরে হোঁচট খায় বাংলাদেশ। মালদ্বীপের সঙ্গে ড্র করে শ্রীলংকাকে হারায়। তারপরও ডু অর ডাই ম্যাচে স্বাগতিক নেপালের কাছে হেরে মামুলি ব্রোঞ্জ নিয়ে দেশে ফেরেন ফুটবলাররা। ফুটবল দল ব্যর্থ হওয়ার পরও বাফুফের পক্ষ থেকে এখনও কোনো পদক্ষেপ বা বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে গতকাল এ বিষয়ে আলোচনা করেছেন চট্টগ্রাম আবাহনীর ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান তরফদার রুহুল আমিন। ফুটবল দলের ব্যর্থতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ফুটবল উন্নয়নের জন্য আগে আমাদের অবকাঠামো ঠিক করতে হবে। সাময়িক যে সাফল্য আসে তা স্থায়ী হবে না অবকাঠামো ঠিক না থাকলে।’ মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের উপমহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু বলেন, ‘দশরথে বসে আমি বাংলাদেশের চারটি ম্যাচই দেখেছি। আমার মনে হয়েছে ফুটবল দলটি সংগঠিত ছিল না। সমন্বয়ের অভাবের পাশাপাশি কোচ, ম্যানেজম্যান্টেরও দায় রয়েছে এমন হারে। অনেকে বলেছেন, ফুটবলারদের বাইরে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে।’ বাফুফে এসএ গেমসে ব্যর্থতার জন্য তদন্ত বা বিশ্লেষণ না করে আগামী নির্বাচনে জয়ের ছক সাজাচ্ছে বলে দাবি তরফদার রুহুল আমিনের। তার কথা, ‘এটা খুবই দুঃখজনক। এই ব্যর্থতার পর্যালোচনা না করে তারা ভোটের হিসাব নিয়ে ব্যস্ত। দশ বছরের ব্যর্থতার পরও তারা ফের চেয়ারে বসার জন্য তোড়জোড় শুরু করেছেন।’

আরও খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত