রেফারির ওপর চড়াও নেইমার : কোচের সঙ্গে বেয়াদবি এমবাপ্পের
jugantor
রেফারির ওপর চড়াও নেইমার : কোচের সঙ্গে বেয়াদবি এমবাপ্পের

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফরাসি লিগে শনিবার নয়জনের মঁপেলিয়েকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে শিরোপা দৌড়ে ১৩ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে গেছে পিএসজি। ঘরের মাঠে একটি করে গোল করেছেন সারাবিয়া, ডি মারিয়া, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও কুরজাওয়া। অপর গোলটি আত্মঘাতী।

এমন দাপুটে জয়ের পর পিএসজি কোচ টমাস টুখেলের মুখে চওড়া হাসি থাকাটাই স্বাভাবিক ছিল। কিন্তু দলের দুই মহাতারকা নেইমার ও এমবাপ্পের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে ম্যাচ শেষে বিব্রতকর প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় টুখেলকে।

পিএসজির জয় ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে এখন এমবাপ্পে ও নেইমারের উদ্ধত আচরণ। নেইমার চড়াও হয়েছিলেন রেফারির ওপর। আর এমবাপ্পে চরম বেয়াদবি করেছেন কোচের সঙ্গে। মনের দুঃখে টুখেল ভাবতে পারেন, দুষ্ট গরুর চেয়ে শূন্য গোয়াল ভালো!

দল ৫-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ৬৮ মিনিটে এমবাপ্পেকে তুলে নিয়ে মাউরো ইকার্দিকে নামিয়েছিলেন টুখেল। কোচের সিদ্ধান্ত পছন্দ হয়নি এমবাপ্পের। রাগে গজরাতে গজরাতে মাঠ থেকে উঠে আসার পর রীতিমতো বেয়াদবি করে বসেন ফরাসি ফরোয়ার্ড।

তাকে তুলে নেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে এগিয়ে এসেছিলেন টুখেল। কিন্তু তার কথা শোনা দূরে থাক কোচকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন এমবাপ্পে! কোচের এগিয়ে দেয়া জ্যাকেটও ছুড়ে ফেলেন।

শিষ্যের এমন উগ্র প্রতিক্রিয়ায় ভীষণ কষ্ট পেয়েছেন টুখেল, ‘ব্যাপারটা খুবই দুঃখজনক। সবার প্রতিই আপনার সম্মান থাকা উচিত। আমি এমবাপ্পেকে বোঝাতে চেয়েছিলাম কেন তাকে উঠিয়ে নিয়েছি। আমার সিদ্ধান্তটা পুরোপুরি খেলাকেন্দ্রিক ছিল। বুঝতে হবে এটা ফুটবল, টেনিস নয়।’

এ ঘটনায় শাস্তি হতে পারে এমবাপ্পের। নেইমারের ঘটনাটা প্রথমার্ধে। হলুদ কার্ড দেখে রেফারির দিকে তেড়ে দিয়েছিলেন ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড। বিরতির সময় টানেল দিয়ে সাজঘরে ফেরার সময় এ নিয়ে এক ম্যাচ অফিশিয়ালের সঙ্গে আবার লেগে যায় তার। নেইমারের কথা বুঝতে না পেরে তাকে ফরাসি ভাষায় কথা বলতে বলেছিলেন সেই ম্যাচ অফিশিয়াল। ক্ষুব্ধ নেইমার টানেলের দেয়ালে কিছু একটা ছুড়ে মেরে চিৎকার করে বলেন, ‘ফরাসি ভাষার নিকুচি করি আমি।’

ঘটনা আরও আছে। অকালপ্রয়াত মার্কিন বাস্কেটবল কিংবদন্তি কোবি ব্রায়ান্টের নাম লেখা জার্সি পরে ওয়ার্মআপের সময়ই দেখা যায় চুলের রং পাল্টে ফেলেছেন নেইমার। গোলাপি রঙের চুলে উদ্ভট দেখাচ্ছিল তাকে। চুলের রং বদলের কারণ বুধবার তার ২৮তম জন্মদিন।

রেফারির ওপর চড়াও নেইমার : কোচের সঙ্গে বেয়াদবি এমবাপ্পের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফরাসি লিগে শনিবার নয়জনের মঁপেলিয়েকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে শিরোপা দৌড়ে ১৩ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে গেছে পিএসজি। ঘরের মাঠে একটি করে গোল করেছেন সারাবিয়া, ডি মারিয়া, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও কুরজাওয়া। অপর গোলটি আত্মঘাতী।

এমন দাপুটে জয়ের পর পিএসজি কোচ টমাস টুখেলের মুখে চওড়া হাসি থাকাটাই স্বাভাবিক ছিল। কিন্তু দলের দুই মহাতারকা নেইমার ও এমবাপ্পের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে ম্যাচ শেষে বিব্রতকর প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় টুখেলকে।

পিএসজির জয় ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে এখন এমবাপ্পে ও নেইমারের উদ্ধত আচরণ। নেইমার চড়াও হয়েছিলেন রেফারির ওপর। আর এমবাপ্পে চরম বেয়াদবি করেছেন কোচের সঙ্গে। মনের দুঃখে টুখেল ভাবতে পারেন, দুষ্ট গরুর চেয়ে শূন্য গোয়াল ভালো!

দল ৫-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ৬৮ মিনিটে এমবাপ্পেকে তুলে নিয়ে মাউরো ইকার্দিকে নামিয়েছিলেন টুখেল। কোচের সিদ্ধান্ত পছন্দ হয়নি এমবাপ্পের। রাগে গজরাতে গজরাতে মাঠ থেকে উঠে আসার পর রীতিমতো বেয়াদবি করে বসেন ফরাসি ফরোয়ার্ড।

তাকে তুলে নেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে এগিয়ে এসেছিলেন টুখেল। কিন্তু তার কথা শোনা দূরে থাক কোচকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন এমবাপ্পে! কোচের এগিয়ে দেয়া জ্যাকেটও ছুড়ে ফেলেন।

শিষ্যের এমন উগ্র প্রতিক্রিয়ায় ভীষণ কষ্ট পেয়েছেন টুখেল, ‘ব্যাপারটা খুবই দুঃখজনক। সবার প্রতিই আপনার সম্মান থাকা উচিত। আমি এমবাপ্পেকে বোঝাতে চেয়েছিলাম কেন তাকে উঠিয়ে নিয়েছি। আমার সিদ্ধান্তটা পুরোপুরি খেলাকেন্দ্রিক ছিল। বুঝতে হবে এটা ফুটবল, টেনিস নয়।’

এ ঘটনায় শাস্তি হতে পারে এমবাপ্পের। নেইমারের ঘটনাটা প্রথমার্ধে। হলুদ কার্ড দেখে রেফারির দিকে তেড়ে দিয়েছিলেন ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড। বিরতির সময় টানেল দিয়ে সাজঘরে ফেরার সময় এ নিয়ে এক ম্যাচ অফিশিয়ালের সঙ্গে আবার লেগে যায় তার। নেইমারের কথা বুঝতে না পেরে তাকে ফরাসি ভাষায় কথা বলতে বলেছিলেন সেই ম্যাচ অফিশিয়াল। ক্ষুব্ধ নেইমার টানেলের দেয়ালে কিছু একটা ছুড়ে মেরে চিৎকার করে বলেন, ‘ফরাসি ভাষার নিকুচি করি আমি।’

ঘটনা আরও আছে। অকালপ্রয়াত মার্কিন বাস্কেটবল কিংবদন্তি কোবি ব্রায়ান্টের নাম লেখা জার্সি পরে ওয়ার্মআপের সময়ই দেখা যায় চুলের রং পাল্টে ফেলেছেন নেইমার। গোলাপি রঙের চুলে উদ্ভট দেখাচ্ছিল তাকে। চুলের রং বদলের কারণ বুধবার তার ২৮তম জন্মদিন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন