বাসায় বোরিং সময় কাটছে: অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক আকবর আলী

  স্পোর্টস রিপোর্টার ৩০ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাঘাতের জেরে ‘গৃহবন্দি’ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী বাংলাদেশ অধিনায়ক আকবর আলী। মাঠ, ক্রিকেট-উইকেট যাকে সব সময় টানে, কেমন কাটছে তার এই নিঃস্তরঙ্গ জীবন?

প্রশ্ন : করোনায় বাইরে বের হতে পারছেন না। সময়টা কীভাবে কাটছে?

আকবর : বাসায় বোরিং সময় কাটছে। টিভি দেখি। খেলা না থাকায় মুভি দেখছি। গেমস খেলেও সময় কাটাই। ফিটনেসের দিকেও নজর রাখতে হচ্ছে। হালকা ব্যায়াম করি। খাবারের দিকে নজর দিচ্ছি।

প্রশ্ন : জাতীয় দলে কবে নিজেকে দেখতে চান?

আকবর : আমি শুধু চেষ্টা করে যেতে পারি। বাকিটা নির্বাচকরা ভালো বুঝবেন। এখনই জাতীয় দল নিয়ে ভাবছি না। সামনে নিজের কাজ সঠিকভাবে করতে পারলে আশা করি ভালো কিছু হবে।

প্রশ্ন : দেশকে প্রথম বিশ্বকাপ এনে দিয়েছেন। শুরুটা হল আপনার হাত ধরে। ভবিষ্যতে নিশ্চয় আরও ট্রফি জেতার স্বপ্ন দেখেন?

আকবর : খুব বেশি চিন্তা করছি না। যেখানে খেলছি সেখানেই উপভোগ করার চেষ্টা করছি। ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ নিয়ে আশাবাদী ছিলাম। গত বছর বিকেএসপিতে খেলেছি। এবার প্রথম কোনো ক্লাবের গাজী গ্র“প ক্রিকেটার্স হয়ে খেলা শুরু করেছি, এখানে ভালো করতে হবে। করোনায় ঢাকা লিগ বন্ধ। বেশি ভাবার সময় এখনও হয়নি। দিনশেষে লক্ষ্য অবশ্যই জাতীয় দলে খেলা। কিন্তু সেটা সব সময় ভাবনায় আনলে হবে না। আবার ভাবলেও যে এখনই হয়ে যাবে তা-ও না।

প্রশ্ন : যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে ঠাণ্ডা মাথায় ব্যাটিংয়ের কারণে কেউ কেউ আপনাকে ধোনির সঙ্গে তুলনা করতে শুরু করেছেন। মাঠের আকবর আসলে কতটা আগ্রাসী?

আকবর : অধিনায়ক হিসেবে আমি বোলিং আক্রমণে কখনও চুপচাপ ভাব পছন্দ করি না। পেসারদের আগ্রাসন পছন্দ করি। ব্যাটিংয়েও আক্রমণ। পরিস্থিতিও বুঝতে হবে।

প্রশ্ন : এই মুহূর্তে জাতীয় দলে মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস ও মোহাম্মদ মিঠুন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে রয়েছেন। তাদের মধ্যে নিজের জায়গা করে নেয়া একটু কঠিন বলেই কি মনে হচ্ছে?

আকবর : কোনো কিছুই সহজ নয়। এখানেও সহজ হবে না। আর আগেই যদি আমি চিন্তা করে ফেলি যে, আমার জায়গায় উনি আছেন তিনি আছেন, তাহলে কিন্তু কঠিন। আমি বিশ্বাস করি, ভালো খেললে জায়গা পাব। আবারও বলছি, এসব নিয়ে এখনই ভাবছি না।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত