ক্রিকেটারদেরও মন কাঁদছে

‘প্রতিটি শোক সংবাদ হতাশার বেদনার’

  স্পোর্টস রিপোর্টার ০১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

২০২০ সাল দারুণ সম্ভাবনাময় একটি বছর ছিল। কিন্তু বিশ্বজুড়ে একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে। বাঁ-হাতি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম জানালেন, বছরটা মোটেই ভালো যাচ্ছে না।

বুড়িগঙ্গা নদীতে সোমবার ঘটে ভয়াবহ এক দুর্ঘটনা। সদরঘাট এলাকায় বড় লঞ্চের আকস্মিক ধাক্কায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে যায় ‘মর্নিং বার্ড’ নামের একটি ছোট লঞ্চ। মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় কাল বিকেল পর্যন্ত ৩৩ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মহামারী করোনার মধ্যে দেশে এমন দুর্ঘটনায় মন কাঁদছে ক্রিকেটারদেরও।

মঙ্গলবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। কঠিন এই সময়ে লঞ্চডুবির ঘটনাটি মানতে পারছেন না ক্রিকেটাররা। যুক্তরাষ্ট্রে থাকা সাকিব আল হাসান ফেসবুকে লিখেছেন, ‘প্রতিটি শোক সংবাদ হতাশার, বেদনার। চার মাস ধরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই মানুষ চলে যাচ্ছে না ফেরার দেশে।

এর মধ্যে আবার বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে লঞ্চ ডুবে অনেক মানুষের প্রাণহানি হল। অনেকে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের স্বজনদের আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠছে চারপাশ। সত্যি বলতে আমি কোনোভাবেই নিজেকে সান্ত্বনা দিতে পারছি না।’ তিনি বলেন, ‘পুরো পৃথিবীর এই ভয়ংকর ক্রান্তিকালে এমন দুর্ঘটনার কোনো সান্ত্বনা বা ব্যাখ্যা আমার জানা নেই। ভবিষ্যতে এমন অনাকাক্সিক্ষত দুর্ঘটনা আর একটিও যেন না ঘটে এমন বাংলাদেশ দেখার প্রত্যাশা করি। মাত্র ৩০ সেকেন্ড দূরের পথে থেকেও, সারা জীবনের জন্য পরোপারে পাড়ি জমানো সব আত্মার প্রতি শান্তি ও সৃষ্টিকর্তার নিকট জান্নাত কামনা করছি।’

এদিকে মুশফিক লিখেছেন, ‘বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় নিরীহ মানুষদের প্রাণহানিতে আমি বিস্মিত ও শোকাহত। এখন পর্যন্ত ভালো বছর নয় এটি।’ অভিজ্ঞ পেসার রুবেল হোসেন স্বজনদের শোক সামলে ওঠার শক্তি কামনা করেছেন, ‘এসেছিল স্বপ্নের নগরীতে বেঁচে থাকার আশায়। কে জানত নিজেরাই চলে যাবে স্বপ্নপুরীতে। অত্যন্ত হৃদয়বিদারক মর্মান্তিক একটি দুর্ঘটনা...বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবিতে নিহত সবার আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।’

আরও খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত